Archive

একচালা ১৪২৯ – আনাড়ি মাইন্ডস-এর পূজাবার্ষিকী

এসে গেল আনাড়ি মাইন্ডসের পূজাবার্ষিকী একচালা (চতুর্থ বর্ষ)। বিনামূল্যে ডাউনলোড করে নিন লিঙ্কে ক্লিক করে। কোনোরকম অনুমতি ছাড়াই ইচ্ছেমতো সকলের সঙ্গে শেয়ার করে নিতে পারেন এই ইবুক। সে লিঙ্ক দিয়েই হোক, বা বই ডাউনলোড করে হোয়াটসঅ্যাপে পাঠিয়েই হোক, যা আপনার মন চায়।

পুজো খুব ভালো কাটুক সকলের।

0 comments

একচালা ১৪২৮ – আনাড়ি মাইন্ডস-এর পূজাবার্ষিকী

এসে গেল আনাড়ি মাইন্ডসের পূজাবার্ষিকী একচালা (তৃতীয় বর্ষ)। বিনামূল্যে ডাউনলোড করে নিন লিঙ্কে ক্লিক করে। কোনোরকম অনুমতি ছাড়াই ইচ্ছেমতো সকলের সঙ্গে শেয়ার করে নিতে পারেন এই ইবুক। সে লিঙ্ক দিয়েই হোক, বা বই ডাউনলোড করে হোয়াটসঅ্যাপে পাঠিয়েই হোক, যা আপনার মন চায়।

পুজো খুব ভালো কাটুক সকলের।

একচালা ১৪২৭ – আনাড়ি মাইন্ডস-এর পূজাবার্ষিকী

এসে গেল আনাড়ি মাইন্ডসের পূজাবার্ষিকী একচালা (দ্বিতীয় বর্ষ)। বিনামূল্যে ডাউনলোড করে নিন লিঙ্কে ক্লিক করে। কোনোরকম অনুমতি ছাড়াই ইচ্ছেমতো সকলের সঙ্গে শেয়ার করে নিতে পারেন এই ইবুক। সে লিঙ্ক দিয়েই হোক, বা বই ডাউনলোড করে হোয়াটসঅ্যাপে পাঠিয়েই হোক, যা আপনার মন চায়।

পুজো খুব ভালো কাটুক সকলের।

আহা রে / Ahaa Re – When dream transcends destiny

“আহা রে” সিনেমাটি এমন একটা বিষয়ের ওপর তৈরী যেটা নিয়ে ভারতীয় সিনেমায় ইতিমধ্যে বেশ কিছু সাড়া জাগানো কাজ হয়ে গেছে , যেমন – Lunchbox, Once Again , Aamis (এটা একদমই অন্য লেভেল এর) ইত্যাদি । ‘রান্না’ কে কেন্দ্রবিন্দুতে রেখে বাংলাতেও বেশকিছু ভাল কাজ হয়েছে, যেমন –
অরিন্দম শীলের “স্বাদে আহ্লাদে”, প্রতিম গুপ্তর “মাছের ঝোল” প্রভৃতি , তাই এই রেসিপিতে একটু অন্যরকম কিছু না পেলে ঠিক জমত না ! এবার প্রশ্ন উঠবে – তাহলে “আহারে” কি জমে ক্ষীর ? উত্তর খুঁজতে একটু গভীরে প্রবেশ করা যাক ।

KADAKH – A dark comedy exploring some dark sides of some bright people

বাস্তব জীবনে উপরিউক্ত পরিস্থিতি যতটা ভয়ের উদ্রেক করে, সিনেমায় সেই একই পরিস্থিতি তৈরী করে ততটাই উত্তেজনাময় মজা, Fun ride ! এমনই এক Fun ride এর গল্প নিয়ে আমাদের সামনে হাজির হয়েছেন পরিচালক এবং অভিনেতা রজত কাপুর । এর আগে রজত কাপুর পরিচালিত সিনেমা Ankho Dekhi দেখেই অনুধাবন করেছিলাম অভিনেতা হিসেবে উনি যতটা দক্ষ, পরিচালক হিসেবেও তিনি কোন অংশে কম যান না । ২০১৩ সালের ড্রামার পর এবার উনি হাত দিলেন ডার্ক কমেডিতে !
বলিউডে কমেডি জঁরে উল্লেখযোগ্য বেশ কিছু কাজ হলেও ” Dark Comedy” জঁরে ভাল কাজ হাতে গোনা কয়েকটাই হয়েছে বলে মনে হয়।

আনাড়ি টকিজ : পর্ব ৪ : সাউন্ড ডিজাইনিং

হিউ,স্যাচ্যুরেশন আর ব্রাইটনেস নিয়েই রঙ এর খেলা। যারা কখনও একবারও ছবি এডিট করার চেষ্টা করেছেন তারা জানবেন যে খুব বেসিক অ্যাপেও এই তিনটি প্রপার্টি থাকে। কোন সিনেমাকে এই তিনটে বৈশিষ্ট্য নিয়ে খেলা করেই একেবারে একট আআলাদা সিনেমা বানিয়ে দেওয়া যায়। অবশ্যই সাদা কালো সিনেমার যুগে এই সুযোগ ছিল না। কিন্তু টেকনিকালার আসার পরেই পুরো ব্যকরণটা পালতে যায়। হলিউড শুরু করে খুব গাঢ় রঙের ব্যবহার। সেই সময়ে ফ্রেঞ্চ নিউ ওয়েভের ফিল্ম মেকাররা বলা শুরু করেন যে সিনেমার রঙ যত কমিয়ে দেওয়া হবে ততই দর্শক সিনেমার চরিত্র, তাদের ইমোশন, ভাবনা চিন্তার ব্যাপারে বেশি সচেতন হবেন। একে বলা হয় ডিস্যাচ্যুরেশন থিওরি। ঋতুপর্ণ ঘোষ দোসর তৈরি করার সময়ে সেই কারণে সাদা কালোতে ফিরে গেছিলেন। ওঁর মনে হয়েছিল এই সিনেমার মূল সম্বল এর ইমোশন, তার জন্য সাদা কালো রঙের গুরুত্ব অপরিসীম।

অভিশপ্ত “আইটি”

অভীক অনেকবার ভেবেছে এই জিনিসটা, মানে সিনিয়র হলেই সব কথার শেষে সাফিক্সের মতো এই ‘রাইট’ শব্দ টা কেন ? এটায় কি কথার জোর বাড়ে ? নিজের ডেসিগনেশনের আনটুয়ার্ডস এডভ্যান্টেজ নেওয়া যায়? নাকি নিজে কনফিডেন্ট না হয়েও ভুল জিনিষ কে ‘রাইট’ বানানো যায় ?

© ছন্দক চক্রবর্তী 

ফেরা

নৈহাটি  স্টেশনে নেমে একটা বড় হাই তুললেন বছর ষাটের চিত্তবাবু, একদম ঘুমিয়ে পড়েছিলেন ট্রেনে। ভাগ্যিস পাশে বসা ছোকরাটা বিকট শব্দে হাঁচল, আর উনি চোখ খুলেই দেখলেন কাঁকিনাড়ার প্ল্যাটফর্ম ছেড়ে গাড়ি বেরোচ্ছে। নড়ে চড়ে বসে বাঙ্ক থেকে ছোট সু্টকেসটা নামিয়ে জানলার হাওয়ায় এলোমেলো হয়ে যাওয়া চুলটা ঠিক করতে করতেই নৈহাটি এসে গেল।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ

একলা ঘর

আশ্চর্য ব্যাপার! এবারেও কেউ উত্তর দিল না। দীপ কৌতুহলবশত আর একটু এগোতেই দেখতে পেল সামনে ফাঁকা ড্রয়িং রুমে একটা হাল্কা নীলাভ আলো জ্বলছে, আর সেই ঘরেরই শেষ প্রান্তে রাখা একটা বিশাল মিউজিক সিস্টেমে বাজছে সেই গান। সাহস করে ড্রয়িং রুমে ঢুকে দীপ লক্ষ্য করল যে ফ্ল্যাটের মালিক বোধহয় একটু আগেই বাইরে গেছেন।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি

কোড নেম ~ প্রমিথিউস

হঠাৎ ঘটনাগুলো একসূত্রে গাঁথা পড়তে থাকে। এত সঠিক ভবিষ্যৎবাণী, সেই এক নীল চোখ, স্যারের ঘরে থাকা সেই ছবির মুখটা, আর তার সাথে এই অমোঘ আকর্ষণ তার ভবিষ্যতের প্রতি, মানুষের প্রতি। 

লেখক ~ স্পন্দন চৌধুরি

কালান্তর

গাড়ির শব্দে সামনের লোহার বড়ো দরজাটা খুলে যে মানুষটা বেরিয়ে এল, অনায়াসে বলে দেওয়া যায় এই মানুষটাই খেতু। হয়তো বাগানেই ছিল। মুখের ভাবটা মোটামুটি একই আছে। বয়সের প্রভাব পড়েছে শরীরে বোঝা যাচ্ছে, কিন্তু এ কী অবস্থা হয়েছে চেহারার! কেমন যেন ক্ষয়ে গেছে মনে হচ্ছে, গালগুলোও কেমন বসা! মাথার অবশিষ্ট যতোগুলো চুল আছে সবই সাদা। চশমার ভেতর দিয়েও চোখের ঘোলাটে ভাবটা বোঝা যাচ্ছে।

লেখক ~ দেবায়ন কোলে

মা

নিমাইয়ের দোকান থেকে ৫০ টাকার রসগোল্লা কিনে, সড়াখানা কেঁড়ে আঙুলে ঝুলিয়ে ফিরছিল বঙ্কা। একেই গোটা দশেক বড় রসগোল্লা মানে মহাভোজ, তায় নিমাই আবার বঙ্কাকে ফাউ দেয়।

লেখক ~ দেবপ্রিয় মুখার্জি

পাঠকের চোখে ~ নীলাঞ্জন মুখার্জির থ্রিলার উপন্যাস “১৪ই ফেব্রুয়ারী”

বই ~ ♦#১৪ই ফেব্রুয়ারী♦
লেখক ~ #নীলাঞ্জন_মুখার্জ্জী
প্রকাশক ~ বেঙ্গল ট্রয়কা পাবলিকেশন
মুদ্রিত মূল্য- ১৮০ টাকা

রিভিউ লিখলেন #পিয়া_সরকার

সখীরি লাজ বৈরন ভঈ

লেখিকা ~ শিল্পী দত্ত

ডেঙ্গু রুখতে জিনের ছুরি

দুঃখের বিষয় এই যে এত কিছুর পরেও এইডিশ মশাদের বাগে আনা যায়নি। ওরা বেশ ধুরন্ধর, বার বার নিজেদের বদলেছে, বাজার চলতি মশা মারার ওষুধের বিরূদ্ধে সক্রিয় হয়ে উঠেছে। প্রতিটা দিনের সাথে রক্তবীজের মতো বাড়ছে এদের বংশ।

তাহলে উপায়?

লেখা ~ অনির্বাণ ঘোষ

একচালা ১৪২৬ – আনাড়ি মাইন্ডস-এর পূজাবার্ষিকী

এসে গেল আনাড়ি মাইন্ডসের প্রথম পূজাবার্ষিকী #একচালা। বিনামূল্যে ডাউনলোড করে নিন লিঙ্কে ক্লিক করে। কোনোরকম অনুমতি ছাড়াই ইচ্ছেমতো সকলের সঙ্গে শেয়ার করে নিতে পারেন এই ইবুক। সে লিঙ্ক দিয়েই হোক, বা বই ডাউনলোড করে হোয়াটসঅ্যাপে পাঠিয়েই হোক, যা আপনার মন চায়।

পুজো খুব ভালো কাটুক সকলের।

দুধের বোতল

© প্রদীপ্ত ঘোষ

জগন্নাথ – সত্যি মিথ্যে নাকি শুধুই রূপকথা?

অন্তিম যাত্রা

সিনেমা ভালো লাগবে না মন্দ লাগবে সেটা যেমন ছবির ধারাপ্রবাহের ওপর নির্ভর করে, ঠিক সেরম ভাবেই নির্ভর করে সেই ছবির থেকে আপনার নিজের কি এক্সপেক্টেশান। বুঝিয়ে বলি, আপনি সিনেমা হলে স্টুডেন্ট অফ দ্যা ইয়ার দেখতে গেলেন এই আশা নিয়ে যে এখানে একটা ছাত্র প্রচুর পড়াশোনা করে ব্ল্যাক হোল নিয়ে একটা দারুন থিসিস দিয়ে, প্রচুর প্রাইজ ফ্রাইজ পেয়ে একদম একাকার করে দেবে; তারপর গিয়ে দেখলেন অমুক অভিনেতা আর অভিনেত্রী বুট ডুবে যাওয়া বরফের মধ্যে টি শার্ট আর চিকনের কুর্তি পরে নাচছে। আপনি আশাহত হবেনই। কিন্তু যদি উল্টোটা হয় তাহলে একটা শক লাগার মতো ব্যাপার হবে। সব শেষে কি দেখলাম না দেখলাম এসব গুলিয়ে গিয়ে নিজেকে ভালোটা বোঝাতে চেষ্টা করবেন, আপনই জিতবেন।

অর্ধাঙ্গিনী

নীহারিকা কেঁপে উঠে হাতটা শক্ত করে চেপে ধরল, “বিক্রম, আস্তে….!” ঘরের কোণে জ্বলতে থাকা দুটো লাল মোমবাতির স্নিগ্ধ আলো এই মুহূর্তকে যেন আরও রোমাঞ্চকর করে তুলেছে। বিক্রম ছাড়িয়ে নিল ওর হাত, টেনে নিল নীহারিকার মোহময়ী শরীরটাকে নিজের আরও কাছে, পিঠে পড়ল আদরের দাগ, ওষ্ঠ অধরের এক নৈসর্গিক খেলায় মেতে উঠল দুটো শরীর।

সাতরঙা

ওই দৃশ্য দেখে কাকিমা নিজেকে ঠিক রাখতে পারেননি, কোনো কথা না বলে নিঃশব্দে ঘর থেকে চলে গিয়েছিলেন,কয়েক মাসের মধ্যেই কাকিমা সুইসাইড করেন।

লেখক ~ ছন্দক চক্রবর্তী

স্কুলের পোশাকে ছবি

বাচ্চাকে যত ভালো স্কুলেই পড়ান না কেন, সে কোন স্কুলে যাচ্ছে, সেই তথ্য দেবেন না ফেসবুকে। স্কুলড্রেস পরা ছবি থেকেও খুব সহজেই কোন স্কুল জানা যায়। সেইরকম ছবি দেবেন না ফেসবুকে বা ইন্সটাগ্রামে।

লেখিকা ~ ঋতুপর্ণা চক্রবর্তী

স্ক্যালপেল-৬ / স্তন নিয়ে দু চার কথা

সার্জারির ডাক্তারবাবুকে তারপরে কাজের কথায় আসতেই হল। বুকে জল জমল কেন? কি করে বোঝা গেল জল জমেছে? কাকিমা বললেন কদিন ধরে শ্বাস কষ্ট হচ্ছিল খুব, সেখান থেকেই বুকের এক্সরে করা, তাতেই ধরা পড়ল।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds

স্ক্যালপেল_১৪

আমার ঈশ্বর তখন এক পলের জন্য অবাক হয়েছিলেন মনে হয়। এই প্রথম বার আমার মুখে ওঁর নামের অন্য ডাক শুনে। ঠিক যেমনটা আমি আমার মেয়ের মুখে ‘পাপা’ শুনে তাকাই।

অন্য এক দোলগাথা

ওই দেকো, ওদিকপানে একবার চেয়ে। মুখে বাঁশি, মাথায় পালক, হলুদ ধুতি পরনে কেমন মিটিমিটি হাসে আমার পানে চেয়ে। রাধারাণী কি বলচে যেন কানের কাছে মাতা ন্যে এসে। মনটা অস্থির হয়ে আছে কদিন থেয়ে।

লেখক ~ পার্থ ঘোষ

অপেক্ষা

সে আর দেরি না করে প্যাকেটটা বার করে। একমাত্র সেই জানে, যে দোতলার জানালাটা এখন খোলা থাকে। বাড়ির আর অন্য জানালাগুলো শক্ত করে আঁটা থাকলেও এই জানালাটা কোন এক অজানা মন্ত্রবলে খুলে যায় এই দিনটাতেই। নাহ, ঘরে কোনও আলো জ্বলছে না। জানালাটার দুটো পাল্লাই হাট করে খোলা।

লেখক ~ স্পন্দন চৌধুরি

পাঠকের চোখে – দ্য ফলেন (The Fallen)

বই ~ #দ্য_ফলেন (The Fallen)
লেখক ~ #ডেভিড_বলডাচি (David Baldacci)
সিরিজ ~ অ্যামোস ডেকার থ্রিলার
প্রকাশক ~ Pan Books
প্রথম প্রকাশ ~ ২০১৮ (ইংল্যন্ড)
পৃষ্ঠা সংখ্যা ~ ৫৯০
মুদ্রিত মূল্য ~ ৭.৯৯ পাউন্ড (আনুমানিক ৭৩০ টাকা)

সরষেক্ষেত ও খৈনি

যাই হোক রডে পোজিশন লে লিয়া। তরুণ কুমারের মত বডি আর উত্তম কুমারের অ্যাটিচ্যুড নিয়ে পকেটে হাত বুলালাম। বিড়ির তাড়াটা মিসিং। ধ্যার্বাল! ঝনঝন্ করে হৃদয়ের গুঁড়ো ঝরে পড়তে লাগল। উড়ে যেতে লাগল বাইরে রানিং গাছপালা, ল্যাম্পপোস্টের গায়ে।

লেখা ~ দেবপ্রিয় মুখার্জি

লাভ ইউ রোহিতা

কিন্তু সবথেকে যা পারে , তা হলো নাকে নথ লাগিয়ে সিঁদুর পরে সম্বন্ধ করতে। যা চিংড়ি পারেনা পোকা বলে। তাত্ত্বিকের তত্ব কিন্তু বিয়ের আয়োজনের তত্বে চুপ করে থাকে। ডালায় সে সেজে ওঠে সুন্দরী হয়ে। আর রাজ্ করে লক্ষ লক্ষ মানুষের মনে।

রূপকথা

মানিক পাড়ার মোড়েই একটা মুদির দোকান চালায়। আগে যদিও কিছু বিক্রিবাটা হতো এখন সেসব আরো কমে গেছে। সেই বাড়ির ছেলে বুবাই, মাথায় খালি ফুটবল আর ফুটবল। পাশের পাড়ার একটা ছোট আধা সরকারী স্কুলে পড়ে। পড়াশোনা চাড়া বাকি সময়ে খালি ফুটবল আর ফুটবল।

লেখক ~ সাবর্ণ্য চৌধুরি

স্বৈরিণী

মার অনুশাসন কানে যায় না তিথির। বাথরুমের ঠান্ডা জল গায়ে ঢালতে ঢালতে দেওয়ালে লাগানো ঝাপসা আয়নাটার দিকে তাকায় ও। চাঁপাকলির মত ফর্সা সরু আঙুলে ধীরে ধীরে ঠোঁটটাকে ছোঁয় ও। আলতো করে, ঠিক যেমন ভাবে অবনীর ঠোঁট দশমিনিট আগে ছুঁয়েছিল ওকে। আঙুল নেমে আসে গলায়, মণিকন্ঠে হাত বুলিয়ে দুই পূর্ণ সুডৌল মালভুমিতে। জলের ধারা শরীর বেয়ে নামে, শিহরিত হয় তিথি। ওর শরীর আজ পূর্ণতা পেতে চায়, কিন্তু অবনী বলেছে অপেক্ষা করো। মৌমিতাকে ডিভোর্স দেওয়া অবধি।

সার্কাস

ইসমাইলের চোখের ইশারায় ওস্তাগরের বাড়ির পেছনের জুতোর কারখানার পাঁচিলের কাছে দেখা করতেও এসেছে কতবার! ইসমাইলের হাতের মধ্যে গলে যেতেযেতে জাপটে ধরেছে ওকে।তখন লালির হাতছুলেও ইসমাইলওর শরীরে হাজার ঘোড়ার দাপাদাপি টের পেত। এখন শালি বাসিয়ামাল।কয়লার উনুন ফুঁকে ফুঁকে মাখন পুড়ে কয়লা হয়েছে। কোনো উত্তেজনাই টের পায়না ইসমাইল। বেদম হয়ে হাত সরিয়ে নেয় ও।

ষোলো আনা চাই তোকে

কথার তুফান টেবিল কাপে, ছলকে পড়ুক গরম চা।
যন্ত্রণাতে চুমুক লাগাই! শোকের আগুন তফাৎ যা।
#কবিতার_খাতা #আনারিমাইন্ডস

জন্নত

খুট করে জ্বলে ওঠে ঘরের আলো। ফিকে আলো। মোহন রিভলভারের ক্ল্যাচ টেনে নিলো দ্রুত। গুনগুনিয়ে গান আসছে ঘরের ভেতর থেকে। সুর আর স্বর দুটোই খুব চেনা। বুকের ভেতর স্পষ্ট হাতুড়ির আওয়াজ…নূরী!

মার দিয়া!

মার দিয়া!

বিগত বসন্তের চিঠিরা

মনে হত আমি ঈশ্বর জাতীয়। দু এক আঁচড়ে লিখতে পারি ইতিহাস। চোখ বন্ধ করলে এখনো দেখা যায় সেই কদম ফুলের মেঘ্দূত। তোলা আছে তারা আমার চন্দন কাঠের বাক্সে। আর আমার চিঠিরা! আছে কোথাও কারো অবচেতনের ঈর্ষা বা অহংকার হয়ে।

প্রেমপত্র

মিথ্যে বলব না, নিদারুণ হিংসে হয়েছিল শানের উপর। কিন্তু কি করা যাবে তুমি যে আমার অধরা মাধুরী দুলতে চলেছ অন্যের বাগানে!

ঝগড়া

ওর নিশ্বাসের ফোঁস ফোঁস শব্দ আমার কানে বাজে। সব সময় ওর কথা মনে পড়ে। ওর চোখ দুটো, মুখটা … আমাকে ছাড়া কিছুই যেন জানেনা বেচারা…

৭২ ঘন্টা

ওটির বাইরে স্তব্ধ হয়ে দাঁড়িয়ে ছিলো জাহ্নবী। সায়নের দাদা আর বাবা উদ্বিগ্ন হয়ে ডাক্তারের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। আত্মীয় বন্ধু হৈতেষীদের ক্রমাগত আগমন ও অনর্গল বাক্যস্রোতে দমবন্ধ লাগছিলো। পৃথিবী টা এক এক বার ফ্রিজ হয়ে যাচ্ছে মনে হচ্ছে। আবার স্টার্ট আবার ফ্রিজ…

ইকবাল

আমাদের ছাদের পাঁচিল, বারান্দার পাঁচিল সবই এত উঁচু যে বাইরে থেকে কিছু দেখা যায়না। গায়ে লাগা বাড়িগুলোয় জানালা দিয়ে মা কাকিমাদের কথা হলেও রাস্তায় বেরিয়ে আড্ডা গল্পের চল নেই একদম। ব্যতিক্রম রাসুদিদা। রাসুদিদা সারাটাদিন একতলার রোয়াকে বসে পথচলতি মানুষের খবর নেন।

বাঁদরনাচ

এ রামোঃ! পুঁটলি কোথায়? এ তো একটা বাঁদর! ওই তো, আরেকটা বাদামীর ওপর হলুদ চকরাবকরা পুঁটলিও নড়ছে। দুটো বাঁদর, মানে একটা বাঁদর আর আরেকটা বাঁদরী। অন্তত ওদের বেশভূষা তাই বলছে।

লেখিকা ~ সুস্মিতা কুণ্ডু

ছন্দপতন

ট্রামের লাইন বৃষ্টি বিকেল ,
কফিহাউস আর কাটিং চা ,
তোর নিচের ঠোঁটের তিলে ,
আমার আঁকা সরলরেখা ।
#কবিতার খাতা #ভ্যালেনটাইন ডে #আদতে আনাড়ি

গোলাপ

‘ভেবেছিলাম ঠিক একটা নেব, দাম টাম সব দেখে
দামটা শুনেই আঁতকে উঠে পকেট গেছে কেঁপে।’
‘নাও না দাদা একটা গোলাপ,হবে পঁয়ত্রিশ করে
চায়ের কাপে মুখ ডুবিয়ে পেটটা যাবে ভরে৷’
#কবিতার খাতা #ভ্যালেনটাইন ডে #আদতে আনাড়ি

ছায়াপথিক

বাসো কি এখনো ভালো?
তবে নিয়ে যেও আমায় আবার
আকাশকুসুমে ভরা ছাদে
তোমার সাথে অনেক গল্প বাকি
কত কথা বলবো বলে
এখনো গুছিয়ে রাখি

#কবিতার খাতা #ভ্যালেনটাইন ডে #আদতে আনাড়ি

ইতি ভ্যালেন্টাইন

নিয়ম মেনে আসতে চেয়েছি কাছে,
সময়টুকু পিছু ডাকছে ভীষন,
অচেনা কিছু উত্তেজনার মাঝে
তোমার কোলের আদর প্রয়োজন।

#কবিতার খাতা #ভ্যালেনটাইন ডে #আদতে আনাড়ি

ঢিলে ইস্ক্রুপ

হ্যাঁ আজই, ও দিকে ব্যাটা গেঁজেল ভোলানাথ বসে আছে তার জাংকইয়ার্ড নিয়ে। আমার অপারেশনাল স্ফিয়ার থেকে বেরুলেই খপাত করে যন্তর গুলো ধরে ক্রাশারে ভরবে।

লেখক ~ সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়

স্বপ্নের দোসর

একজন মানুষ তার গোটা জীবনে ছ’বছর স্বপ্ন দেখেই কাটিয়ে দেয়। তার অনেকটাই তার মনেও থাকে না, স্বপ্নটা মস্তিস্কের কোন অংশে তৈরি হয় তা আজ অবধি কারোর বোধগম্য হয়নি, কেউ ঠিক জানেও না স্বপ্ন মানুষ ঠিক কেন দেখে, অনেকে বলে অন্য মনের ইচ্ছাগুলো থাকে তাতে, বা ভয়, অনেক সময় কামও।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ

আরোগ্য

আজ যেন বড় ক্লান্ত দেখাচ্ছে ওকে। এলোমেলো মাথার চুল, গাল ভর্তি দাড়ি। চোখের তলায়ও কালি পড়েছে ; বুঝলাম অত্যাধিক দুঃশ্চিন্তায় রাত জাগার ফল এটা। শরীরও ভেঙেছে এ কয়েকদিনে। তবে, এসবের মধ্যেও তার চোখে একটা চাঞ্চল্যের ভাব লক্ষ্য করলাম।

লেখক ~ সুদীপ্ত নস্কর
#AnariMinds

পুরুলিয়া পাঁচালি – ২

শ্রীকৃষ্ণের খুল্লতাতঃ,শ্রী দেবল সেন,
আসিয়া পুরুলিয়া,মন্দির গড়লেন।
অপদার্থ পাঠানের কামানের গোলা,
খেলিয়া গিয়াছিল ধ্বংসের লীলা।
#AnariMinds #ThinkRoastEat #KobitarKhata

পুরুলিয়া পাঁচালি – ১

খয়রাবেরা ড্যামখানি অতি চমৎকার,
প্রাক্কালে গোধূলিতে ভ্রমণ বেটার।
এরপর সোজা ধাই চড়িদার পানে,
মুখোসের গ্রামখানি ছাপিয়াছে মনে।
#AnariMinds #ThinkRoastEat #Kabitarkhata

কিচ্ছু চাইনি আমি, আজীবন ভালবাসা ছাড়া

কিচ্ছু চাইনি আমি, আজীবন ভালবাসা ছাড়া

পাঠকের চোখে – বটকৃষ্ণবাবুর বুলেট

পাঠকের চোখে – বটকৃষ্ণবাবুর বুলেট

পাঠকের চোখে – কালিয়া মাসান

পাঠকের চোখে – কালিয়া মাসান

তেমাথার যীশু

পলিথিনের ব্যাগটা দুলাতে দুলাতে শ্রী হাউসিংয়ের গলিটার দিকে মিলিয়ে যায় ঋতু। লাল গোলাপী বেলটার দিকে একবার তাকায় ভিকি। অনেক অনেকদিন আগে অঞ্জনদা এক্সমাসে একটা কেকের বাক্স দিয়েছিল সবাইকে। তাতে সান্টাক্লজের হাতে ছিল একটা সোনালী রঙের বড় একটা বেল।

লেখিকা ~ পিয়া সরকার
#AnariMinds

শীতের সকাল

মাঝে মাঝে ভুলে যাই যে আমি আর কচি খোকা নই। ভূমিকা উপসংহারের বেড়াজালে শীতের সকাল, গ্রীষ্মের দুপুর বা বর্ষনমুখর রাত্রিকে আর বেঁধে রাখতে পারি না। বারো নম্বরের রচনায় শূণ্য পেলেও খুশি, কিন্তু শীতকালকে নতুন ভাবে চিনেছি অনেক বছর ধরে, তাই আজ একটা ট্রাই নিচ্ছি ছোটবেলার সেই রচনাটাকে একটু “আনাড়ি” স্টাইলে লিখতে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

বড়দিন

“ওই কেক টা খাব না মা, ওটা কমা” বলল ট্যাক্সি থেকে নামা বাচ্চাটা।
সদ্য মরণ সঙ্কোচন হওয়া ভিখারি মায়ের শিশুটা শূন্যে হাত ছুড়ে দিল – শেষবারের মত,
প্রশ্ন করল – “আমার প্রাণটার দাম কি ওই কেকটার চেয়েও কম ছিল কাকিমা ?”
কোনও উত্তর এলো না।

#KobitarKhata #AnariMinds #ThinkRoastEat

লোহার রড

মনে পড়ে যায় অন্ধকার
মনে পড়ে কান্না রাগ কষ্ট
মনে পড়ে রক্ত, মনে পড়ে ভীষণ শীতে জমে যাওয়া দুটো প্রায় নগ্ন শরীর
মনে পড়ে অসহায় বন্ধুত্ব
#KobitarKhata #AnariMinds #ThinkRoastEat

ইচ্ছেডানা

আমি গাড়ি চড়তে খুব ভালোবাসি, ছোটবেলায় বাবার গাড়িতে উঠলে আর নামতে চাইতাম না, গাড়ি সিগন্যালে দাঁড়ালে মাকে মারতাম যেন মায়ের জন্যই গাড়িটা চলছে না – আসলে গাড়িটা চললে আশেপাশের সব কিছু মুভিং লাগতো আমার, গাছ বাড়ি গাড়ি দোকান সাইকেল লোকজন সবাই পেছনে সরে সরে যাচ্ছে – আর দাঁড়িয়ে থাকলে খুব অস্বস্তি হতো।

লেখক ~ ছন্দক চক্রবর্তী
#AnariMinds

নদ্যন্তর

কী জানি
সে কেমন নদী হবে
মনের দিগন্তে পাতবে আঁচল তারায়
ভাঙবে আমায় উল্কা-আঁচড়ে
বা চোখের চপলতায়

#AnariMinds #Rhymics #ThinkRoastEat

পাঠকের চোখে – নটী নবনীতা

নটী নবনীতা

হায়রোগ্লিফের দেশে – বই আড্ডা

লেখক অনির্বাণ ঘোষের সাথে অরিজিৎ গাঙ্গুলির আড্ডা। বিষয় “হায়রোগ্লিফের দেশে”।

কলকাতার শীত

বাঙালি শীতচাতক। অর্থাৎ শীতকাল কবে আসবে সে জিজ্ঞাসা তার কথা, কলম আর কীবোর্ডে সতত বিদ্যতে। পুজো সেপ্টেম্বরেই হোক না কেন, কোজাগরী থেকে বাঙালির ‘ঠান্ডা’বোধ হতে থাকে। ভোরের কুয়াশাঘেরা চায়ের দোকানে অথবা অফিসফেরত পাড়ার মোড়ের টুপটাপ হিমপড়া আড্ডায়, একজন থাকবেই যে বলে উঠবে, “এবার কিন্তু বেশ ঠান্ডা পড়বে, দেখে নিস!”

লেখক ~ সপ্তর্ষি বোস
#AnariMinds

বাকিটা ইতিহাস

কাবুল ছাড়িয়েছি দশ ঘন্টা আগে,মাঝখানে দু তিন বার গাড়ি থেমেছিল প্রাকৃতিক প্রয়োজনে।কিছু খাওয়াও হয়নি গত বারো ঘন্টায়,আগের বার যখন নেমেছিলাম স্ফীত ব্লাডারকে খালি করতে,তীব্র হাওয়ায় দাঁড়াতে পারছিলাম না।তুষারপাত হচ্ছে ক্রমাগত।তুষারপাতের ফলে রাস্তা বন্ধ হয়েছেও কয়েকবার।

লেখিকা ~ পিয়া সরকার
#AnariMinds

বেবি অন বোর্ড

কিন্তু তারপরেই টনক নড়ল যখন ওই ভিড়ের মধ্যেই সামনের সিটে বসে থাকা আরেক ব্রিটিশ ভদ্রমহিলা নিজের সিট থেকে উঠে দাঁড়িয়ে আমার সামনে দাঁড়ানো ব্যাজ পরিহিতাকে হাত নেড়ে বসার জন্য ডাকলেন। ইনিও থ্যাঙ্ক ইউ বলে আস্তে আস্তে ভিড় ঠেলে গিয়ে বসলেন সেই সিটে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

ফুলঝুরি

সন্ধেবেলা অন্ধকার ঘনিয়ে আসতেই আমাদের ছাদে হল প্রথম টেস্টিং। আশেপাশের ছাদে পানতুবড়ির ভুসসস করে আওয়াজ শুনে ঘাড় ঘোরাতে গিয়েই দেখছি ছাদ অন্ধকার, মানে তুবড়ি খতম। পাঁচিলে বসিয়ে তিনবন্ধু একটাই ফুলঝুরিকে ধরিয়ে শুভ উদ্বোধন করলাম আমাদের স্বরচিত প্রথম তুবড়ির।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

নতুন জুতা

– তুমার কনও গ্য়িয়ান যে কবে হবেক কে জানে! – ক্যানে? কী হইছে? – মাঝরাত পেরায়ে গ্যাছে সে খেয়াল আছে তুমার, নাকি কলকেতা যেয়ে সিটাও ভুলছ? – শুনঅ ত আগে। […]

বইপড়া – শারদীয়া_দেশ_১৪২৫- পূজাবার্ষিকী_গল্প

রমণী ও ব্যায়ামবীর – শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় প্রথম গল্প শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের এবং একে যদি শারদীয়া দেশের গল্প বিভাগের টোন–সেটার হিসেবে দেখা হয় তাহলে নির্দ্বিধায় বলা চলে উপন্যাস থেকে গল্পে ফিরে এসে […]

পাণ্ডুলিপি

– টেবলটা ওইদিকে। বইমেলায় রিলিজ করতে হলে আর দেরী করলে চলে নাকি মশাই!
– মুন্সীবাবু, এইবারটা থাক। বই করার দরকার নেই।
– অ্যাঁ! বই থাক! কী বললেন?
– আজ্ঞে, আপনার শ্রবণশক্তি লাজবাব।

লেখক ~ সপ্তর্ষি বোস
#AnariMinds

প্রবাসী বাঙালির রোজনামচা

লোকজনকে গালি দেওয়া হেব্বি সহজ জানেন তো দাদা, খালি নিজের ওপরে যে যখন পড়ে, তখনই ফেটে চৌচির হয় আর কি….তো এরকমই ফাটা চৌচির দিল কে টুকরো সে নিকলা চান্দ্ আলফাজ…

লেখক ~ ছন্দক চক্রবর্তী
#AnariMinds

ভূমি

এলাকার প্রজন্মের পর প্রজন্মের শিশুকিশোরদের বুড়ির পেছন পেছন ছড়া কাটতে কাটতে যাওয়ার মতো ফ্রিএর বিনোদন আর নেই বললেই চলে। আস্ত শরীরটা কিছুক্ষণ উত্তক্ত করলেই দেখতে পাওয়া যায়। কুঁচকে, চিমড়ে যাওয়া হাড্ডিসার দেহের মধ্যে আঁটোসাটো বুকজোড়া বেমানানরকমের পুষ্ট।

লেখিকা ~ শিল্পী দত্ত
#AnariMinds

ভোকাট্টা

ছোটবেলাতেও আমাদের হাতে থাকত রিমোট, আর আকাশে উড়ত ড্রোন। তফাৎ শুধু একটাই ছিল। আকাশের সেই ড্রোন আর হাতের রিমোটের মধ্যে সংযোগসূত্রটা অদৃশ্য ছিল না। বেশ ভালোই চোখে পড়ত লাল বা নীল রঙের মাঞ্জা সুতো।

লেখা ও প্রচ্ছদ ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

ছোট্ট একটা শহর মাত্র

সে শহরে গরমকালের দুপুরে দিব্য হত লোডশেডিং। আর হাতপাখাতে ঘাম শুকিয়ে নিয়ে মা বসে যেত বেল ছাড়াতে। নিত্যিপুজোর বামুনঠাকুর ইন্দ্রদা আসত রঘুনাথকে সেই শরবত খাওয়াতে। আর ভোগের বাকিটা ছোট্ট ছেলের ইয়াব্বড়ো স্টিলের ঘটিতে।

লেখা ~ সপ্তর্ষি বোস
#AnariMinds

প্যান্টুলুন

মুচকি হেসে বেরিয়ে আসতে লাগলাম। প্যান্টালুন্সের দরজা দিয়ে বেরিয়ে বউকে সুখবরটা দিতে যাব, এমন সময় দেখি আমার দু কাঁধে দুটো ভারি হাত এসে পড়ল, খাবলে ধরা যাকে বলে। বউয়ের চোখের দিকে তাকিয়ে দেখি বেশ চমকে উঠেছে।

লেখা ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

দর্শকের চোখে – লাভিং ভিনসেন্ট

টাইটেলঃ লাভিং ভিনসেন্ট
পরিচালকঃ ডরোটা কবিয়েলা আর হিউ ওয়েলশম্যান

রিভিউ ~ অনির্বাণ ঘোষ

পাঠকের চোখে – তেইশ ঘন্টা ষাট মিনিট

আচ্ছা, কেমন হত যদি দৈনন্দিনের জরুরী প্রয়োজনগুলো মেটানোর জন্যে আমাদের খেলতে হত একটা করে খেলা আর সেই খেলার হারজিতের ওপর নির্ভর করত আমাদের চাওয়া কিন্তু না পাওয়া সব জিনিসগুলো।

লেখক ~ সপ্তর্ষি বোস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

সিনে দর্পণ – ওকজা

গল্পটা সেই পুরনো পোষ্য আর পালকের প্রেমের! সেই মার্কিন ভোগবাদের বিপরীতে এক আবেগসর্বস্ব লড়াইয়ের! কিছু মানুষের একটা আদর্শ রক্ষার জন্য জীবন বাজী রাখার গল্প! 

লেখক ~ দেবায়ন কোলে
#AnariMinds #ThinkRoastEat

লেডি ডায়না এদিকে আয়না

এছাড়া রয়েছে পেন্সিল বক্সে মাপ করে কাটা খবরের কাগজ। যেটা তুললেই স্কেচপেন দিয়ে লেখা – A A A A… পাশে আটকানো লাভ সাইন বা নিষিদ্ধ হার্ট স্টিকার। বোধহয় হিম্যান,স্কেলেটর,গাড়ি,বাইক,শচীন,কপিল,মারাদোনারস্টিকারেরপাতারসাথেলুকিয়েস্মাগল্ডহয়েছে।রেডিয়ামচাঁদতারাওরয়েছে।পেন্সিলবক্সেলুকনোএকঅতিক্ষুদ্রসিলাবস্টোরি।অমৃতাউইলিয়ামস্।

লেখক ~ দেবপ্রিয় মুখার্জী (গুলগুলভাজা)
#Anariminds #ThinkRoastEat

রঙ্গোলি

ভবেশ এসে মারে ওকে রোজ। শালা চুল্লুখোর বুঢ্ঢা। মারতে মারতে গালি দেয় হারামিটা। কান পেতে শোনে শ্রীধর। মিতার কান্নার আওয়াজ। গোঙানির আওয়াজ। ইচ্ছা করে এ পাঁচফুটিয়া দিওয়ার ভেঙে ওপারে যায় ও। পরদিন সকালে আবার যখন দেখে মিতাকে, গুল দিচ্ছে চুপচাপ, মনের ইচ্ছাটা দবাতে হয় ওকে। এত্ত মার খায়..লেকিন অওরত জাতভি কেয়া অজীব জাত হ্যায়।

লেখিকা~ পিয়া সরকার
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ইগের অভিশাপ

অন্ধকারের মধ্যে একটু ভাল করে দেখতে হয়, একটা মানুষের অবয়বের মতো কিছু যেন পড়ে রয়েছে সেই বেদির উপর। অবয়বটা একবার নড়ে চড়ে উঠলো যেন। মৃদু শিসের শব্দটা এবার একটু জোড়ালো হয়েছে। মিঃ রোজারের হৃদ- স্পন্দন দ্রুত হয়ে গেছে তা তিনি আঁচ করতে পারছেন। এবার তিনি স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছেন জানোয়ারটাকে। দূর থেকে দেখলে প্রথমে মানুষ ভেবে ভুল করতে হয়। কিন্তু একটু লক্ষ্য করলে বোঝা যায়, কোমরের উপরিভাগ মানুষের মতো হলেও কোমরের নীচে পা নেই। তার জায়গায় এক মস্ত বড় আঁশযুক্ত লেজ রয়েছে। যা হিলহিলিয়ে জলের উপর মৃদু তরঙ্গ সৃষ্টি করছে জানোয়ারটা।

লেখক ~ সুদীপ্ত নস্কর
#AnariMinds #ThinkRoastEat

এবার মঞ্চে আসছেন

আর একটু এগোতেই বুইতে পারলাম কেসটা। সাউন্ড চেকের মধ্যেই মাইকে ঢুপ ঢুপ করে দুবার হাতের তালু ঠুকে খদ্দরের পাঞ্জাবি পরা অ্যাঙ্কর অ্যানাউন্স করলেন, “ধইয্যো ধরুন, আর কিছুক্ষণের মধ্যেই সুরু হতে চলেছে বহু পোতিক্ষিতো কিসোর রোফি নাইট!”

লেখা ও প্রচ্ছদ ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

দরিন্দা

গাড়ীটা বেরিয়ে যেতে মেয়েটা পিছন ঘুরে টলতে টলতে এগিয়ে গেল গেটের দিকে| … অপলক তাকিয়ে আছে সে মেয়টার দিকে| ফোঁটা ফোঁটা জল চুঁইয়ে পড়ছে তার বর্ষাতি থেকে, কানের লতি থেকে, চোখের পাতা থেকে|

লেখক ~ দিব্যেন্দু বিজলী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

শেষ চিঠি

হঠাৎ’ খাটটা একটু নড়ে উঠল। খাটে কেউ বসলে যেমন ভাবে নড়ে উঠে ঠিক তেমন। পা থেকে মাথা অবধি এক হিমেল স্রোতের প্রবাহ অনুভব করলাম। খুব সন্তর্পণে দম বন্ধ করে ক্ষীণ চোখ খুলে দেখে সারা শরীর অবশ হয়ে গেল। খাটের উপর পায়ের কাছে বসে অবিনাশ, আমার দিকে এক দৃষ্টে চেয়ে আছে। তার চোখ দুটি জ্বলন্ত ভাটার মত লাল হয়ে জ্বলছে। ক্ষুধিত বাঘের মত ক্ষিপ্র ভাবে সে আমার মাথার কাছে সরে এসে মুখের কাছে ঝুঁকে এলো, বিদ্যুৎ খেলে গেল শিরা উপশিরায়।

লেখক ~ সুদীপ্ত নস্কর
#AnariMinds #ThinkRoastEat

তরল রহস্য

ঢিবির একপ্রান্তে আমি আর একপ্রান্তে ফ্র‍্যাঙ্ক। আমি ক্যামেরাটা তাক করে সুইচটা টিপে দিলাম হয়তো ছবিটা ঠিক উঠলো না, কারণ উত্তেজনায় আমার হাতটা তখনও ঠক ঠক করে কাঁপছে। এই অবস্থায় প্রথম শর্টে স্পষ্ট ছবি উঠবে সে কথা কল্পনা করাই বোকামি। সঙ্গে সঙ্গে এক চোখ ঝলসানো ফ্ল্যাশের আলোয় কয়েক সিকি সেকেন্ডের জন্য প্রগাঢ় অন্ধকারের নিকষ ঘনত্ব চূর্ণবিচূর্ণ হয়ে গেল। আকস্মিক উজ্জ্বল আলোর ঝলকে সাময়িক বিচলিত হওয়ার পরই জানোয়ারটি আমাদের দিকে ক্ষিপ্রদৃষ্টে কিছুক্ষণ চেয়ে রইল।

লেখক ~ সুদীপ্ত নস্কর
#AnariMinds #ThinkRoastEat

জোকার

– ক্লাইম্যাক্সটা ঝুলিও না। তীরে এসে তরী ডোবানোর মত, ওই নোলান ছোঁড়াটা যেমন আমাকে টাঙিয়ে দিলে একটা দশতলা বাড়ি থেকে! ওটা বড্ড গায়ে লাগে।

– আহা, তা সাড়ে আটশ ফিটের গ্ল্যামারাস হাইরাইজ চলবে কী?

লেখক ~ সপ্তর্ষি বোস
প্রচ্ছদ ~ সৌমিক পাল
#AnariMinds

একটা হঠাৎ পাওয়া বিকেলবেলা

আজ হঠাৎ মনে পড়ে গেল সেই বিকেলগুলোর কথা। তখনও হাতে ফোন বা জয়স্টিক আসেনি। বিকেলবেলা বন্ধুরা দল বেঁধে ডাকতে আসত “পিকলুউউউউ, খেলতে যাবি!” ব্যাট উইকেট আর সাথে চাঁদা দিয়ে কেনা সাড়ে তিনটাকার রবার ডিউস বল নিয়ে দৌড়ে দৌড়ে হাজির হতাম অবিনাশ ব্যানার্জি লেনের সেই লম্বা গলির মুখে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

ম্যাচ রিপোর্ট ৩ – নাইজেরিয়া বনাম আর্জেন্টিনা

ম্যাচ শেষে সাম্পাওলি-কে সাংবাদিকরা জিজ্ঞেস করেন, “হিগুয়াইনের এই ধারাবাহিকতার রহস্য কি?” উনি মুচকি হেসে উত্তর দেন, “ছেলেটাকে গোল পোস্টের ভেতরে দাঁড় করিয়ে বলি গোল দিয়ে দেখা……. তাতেও বাইরে মারে!”

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

ম্যাচ রিপোর্ট ২ – ব্রাজিল বনাম কোস্টারিকা

গতকাল আর্জেন্টিনার হার্টব্রেকিং রেজাল্টের পর আজ ব্রাজিল নীল ও কোস্টারিকা সাদা জার্সি পরে খেলবে ঠিক করেছিল। এই ঘটনা প্রমাণ করে পৃথিবী থেকে মনুষ্যত্ব এখনও হারিয়ে যায়নি।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

ম্যাচ রিপোর্ট ১ – আর্জেন্টিনা বনাম ক্রোয়েশিয়া

আর্জেন্টিনার কোচ সাম্পাওলির গুগুল ফিট অ্যাপে আজ ৯১৭৬৫ স্টেপ্স ধরা পড়েছে ৯০ মিনিটে। উনি ১০৮ মাইল হেঁটেছেন খেলা চলাকালীন। শেষের দিকে জামা খুলে ফেলেছিলেন। নক আউট স্টেজে এক্সট্রা টাইম হলে কি হত, সেই ভেবেই গায়ে কাঁটা দিচ্ছে!

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariaMinds

মেসিকে লেখা চিঠি

নাহ, আমি মেসি ভক্ত এরম কথা কস্মিনকালেও কেউ বলবে না। ইনফ্যাক্ট দু্:স্বপ্নেও কেউ বলবে না। যারা আমায় ভালো করে চেনেন বা জানেন তারা জানেন আমি ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর কত বড় ভক্ত। […]

কড়া নাড়ি স্বর্গের দরজায়

বজ্রগম্ভীর হাঁক শুনে আমার হৃৎপিন্ডটা দ্বিতীয়বারের জন্য বন্ধ হতে গিয়েও পারল না। দেখলুম মালকোঁচা মারা ধুতি পরে একজন ছুটে এসে হাঁপাতে লাগল, ভুঁড়িখানাও তার জব্বর।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

ইঁদুরদৌড়

সোজা কথা এই “কৃতী ছাত্র” নামক নাটকটি করে সামাজিক বিভেদ সৃষ্টি করার আমি খেলাপ।এটা করে কী লাভ?আপনার ব্যাচের টপটেন কে ট্র্যাক করেন আপনি?না নিজের সার্কেলেই থাকেন?

লেখক ~ দেবপ্রিয় মুখার্জী (গুলগুলভাজা)
#AnariMinds

শুধুই নয় টিউশনি

হাঁসুলির মাঠ টা পেরিয়ে চন্ডীতলার রাস্তা দিয়ে যদি বিকেলের দিকে যাতায়াত করেন, তাহলে নির্ঘাত আপনার চোখে পড়বে হলুদ দোতলা বাড়ির সামনে একদল স্কুলপড়ুয়াদের জটলা আর তাদের তারস্বর চিৎকার। এ আমাদের কাছে এক অলিখিত নিয়ম।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

ব্যালেন্সিং অ্যাক্ট

আইনক্সে “অ্যাভেঞ্জারস” দেখে এলেন ১৮০ টাকা পার হেড খসিয়ে। তারপর পপকর্ন, বাটার কর্ন, সুইট কর্ন খেয়ে ঢেঁকুর তুলে সন্ধেবেলা বাড়ি ফিরে সোফায় বসতেই গিন্নী টিভি চালিয়ে “জামাইরাজা” দেখতে শুরু করল। আপনার ভেতরের থানোস তখন রুটি ছিঁড়ে বেগুনভাজা পাকিয়ে মুখে ঠুঁসছে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

প্রি-ওয়েডিং

– ফ্যামিলি প্যাক অর্ডার করেছি রে। ৫ রকম ফ্লেভারের সেট। যখন যেটা খেতে ইচ্ছে করবে।

– ইশ, দুষ্টু ছেলে! দেখব তোর কেমন সংযম। আমার তো মনে হচ্ছে প্রথম অ্যানিভার্সারির আগেই না তোকে বার্থডে সেলিব্রেট করতে হয়।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

মজার গ্রাম

আজব গাঁয়ে সবুজ ইদুর,
করত চুরি বেছে বেছে,
আরেক ছিল লালচে হুলো,
অলক্ষুণে কাঁদত মিছে।

কবি ~ দেবপ্রিয় মুখার্জী
#AnariMinds

কালপুরুষ

কেউ জানে না তিনি কে। তিনি নিজেও মাঝেমধ্যে মনে করতে পারেন না। ভুরুদুটো কুঁচকে মাঝেমাঝে মনে করার চেষ্টা করেন – শুধু হিজিবিজি কিছু ফর্মুলা ছাড়া কিচ্ছু মাথায় আসে না।

লেখক ~ নির্বাণ রায়
#AnariMinds #ThinkRoastEat

কপাল

আজব কাণ্ড, আজব ব্যাপার! গরীবেরা যে যমের অরুচি সে-কথাটাকেই সপ্রমাণ করে মাসখানেক পরে বুঁচি হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি এসেছিল। কেউ ভাবেনি, সবাই আশা ছেড়ে দিয়েছিল।

লেখিকা~ পিউ দাশ 
#AnariMinds #ThinkRoastEat

সব সাজানো ঘটনা

” একজন কে বললাম , পরীক্ষা দিতে গেলে এক্সাম হলের সামনে আমার বন্ধুত্ব দাঁড়িয়ে থাকবে , ভয়ে আর পরীক্ষাই দিলো না । আর একজন শুনলো না , তো কি আর করবো, বন্ধুত্বের প্রমান দিতেই হলো, ও এখন হাসপাতালে ।”

#AnariMinds #ThinkRoastEat

I Told You…

She forwarded again… there was a rhythmic snore now; more clear than earlier. She was about to turn it off in frustration, when something else caught her attention.

Athour – Snigdha Sahoo
#AnariMinds #ThinkRoastEAt

History Rewritten – A Tiny Story

He wanted her to prove. “You don’t believe me?”, she asked with tears in her eyes. “The society does not believe you.”,  he too had his eyes moistened and his voice […]

লাফিং বুদ্ধ

ঘাটে পৌঁছতেই দেখলাম ভদ্রলোক যেন আমার অপেক্ষা করেই দাঁড়িয়ে আছেন। মুখে সেই বিষণ্ণ হাসি। ওনার দিকে না তাকিয়ে দৌড়ে দৌড়ে সিঁড়িগুলো বেয়ে নেমেই শেষ চাতালটা থেকে সর্বশক্তিতে মূর্তিটা ছুঁড়ে দিলাম গঙ্গার জলে। ঝপাস করে একটা শব্দ করে লাফিং বুদ্ধমূর্তিটা ডুবে গেল।

লেখক ~ স্পন্দন চৌধুরী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মোরগ

“মেয়ে কি রঙ্গিলা কাজ করে বেড়াচ্ছে তার খবর রাখিস?” বিরক্তমুখে চেপে চেপে, হেসে হেসে বলেছিলেন ইন্সপেক্টর সায়েব।

লেখিকা~ পিউ দাশ 
#AnariMinds #ThinkRoastEat

খচাৎ

হোয়াটসাপে মেসেজ করেছে ইস্মাইল।সাথে একটা ছবিও এসেছে।ছবিটা দেখে ঘন্টার মাথায় হাত,চোখ কপালে উঠে যাবার জোগাড়।দেখল ওদের পেপার আলা চন্দন মালতীকে জড়িয়ে বিছানায় শুয়ে।বিছানাটা ঘন্টার ঘরের।ঐ তো সেই বেগুণী রঙের গোলাপ আঁকা

লেখক ~ দেবপ্রিয় মুখার্জী (গুলগুলভাজা)
#AnariMinds #ThinkRoastEat

রেহেম

আশ্চর্য, আগে কোনদিন খেয়ালই করেনি সে, বাখ্তাজার চোখদুটো অপূর্ব বাদামী! অদ্ভুত, যে মেয়েটার সাথে গায়ে গা লাগিয়ে বসে থাকত সে, তার ত্বকটা এমন আপেল রং সে জানতই না! গনি অবাক হচ্ছিল কারণ সে ভেবে পাচ্ছিল না যে মেয়েটার সাথে তার চিমটি কাটা আর চুল টানাটানি হত রোজদিন তার চুলটা এরম সোনালী কী ভাবে হয়ে গেল! মিষ্টি একটা আতরের গন্ধও আসছিল যেন কোত্থেকে নাকি সেটা মনেরই ভুল?

লেখক ~ সপ্তর্ষি বোস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

নাছোড়বান্দা

আব্বে অইইইইই, মামদোবাজি পেয়েছিস নাকি? এই দ্যাখ, দেখেছিস এই পিস কোনওদিন? দাঁত দিয়ে চাবি খুলে তোর প্যান্টে ঢুকিয়ে চেন টেনে ধাঁ হয়ে যাব। মিলিয়ে যাবি জাস্ট হাওয়ায়। স্যাট করে বলে ফেল কি পোস্নো।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

পাঠকের চোখে ~ প্রিন্স দ্বারকানাথ

এই লেখাটা বই-রিভিউ, নাকি পাঠ প্রতিক্রিয়া, সেই নিয়ে আমার নিজেরই দ্বিমত আছে। কোনও একটা বই পড়া শেষ করে এরকম অনুভূতি আমার আগে হয়নি, তাই মনে হল সকলের সাথে এই অভিজ্ঞতা শেয়ার না করলে কয়েকটা মানুষের প্রতি অবিচার করা হবে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds

জ্ঞানদা ও টাইম ট্রাভেল

জ্ঞান দা ফোন টা পাশে রেখে দিল। চোখ টা বুজে দু মিনিট নীরবতা। জ্ঞান দার “জ্ঞান” দেহ রাখার দুঃখে । চোখ খুলে বলল , “সিগনাল পাঠিয়ে দিয়েছি ঠিক কিছুক্ষণ বাদে বেরিয়ে আসবে।” এইটা জ্ঞান দার এক অদ্ভূত আমদানি।

লেখক ~ অর্ক ভট্টাচার্য্য
#AnariMinds #ThinkRoastEat

পাপ

তৃতীয় ছবি | ফুলে ফুলে সাজানো ঘর | বিছানার পাশে দাঁড়িয়ে সদ্য বিবাহিতা মেয়েটি..পোষাক আলুথালু তার..ঘনিষ্ঠ ভাবে জড়িয়ে চুম্বন করছে একটি ছেলেকে | আর দরজার পাশে দাঁড়িয়ে অন্ধ ছেলেটি | মেয়েটির বর |

লেখিকা ~ সূর্য্যানি মুখার্জি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

গৃহশান্তি

এতো মহা জ্বালা , সারাদিন সবার আলোচনার বিষয়বস্তু কি – কি কারণ হতে পারে ? পুরো শার্লক হোমস , ফেলুদা , ব্যোমকেশ, সবার মতো করে ভেবেও কুল কিনারা করা যাচ্চে না , চাপা উত্তেজনা  চারিদিকে । তো , বিকেলের টি – ব্রেকে চেপে ধরা হলো , ” আরে গৃহশান্তি ভায়া , ওই যে ভাগাড়ের মাংসের খবর , সে জন্যেই তো আমার বাড়িতে শান্তি ফিরে এলো ! ” ” একটু খুলে বলো দাদা ! ভাগাড়ের মাংসের সাথে তোমার ঘরের শান্তির কি সম্পর্ক ?”

#AnariMinds #ThinkRoastEat

আমি সে এবং অপর একটি মাত্রা

একটা কান ফাটানো আওয়াজ পেলাম। হাঁ করে দেখলাম, একদম আমার সামনে হুড়মুড় করে ভেঙ্গে পড়ছে একটা অর্ধেক তৈরি ফ্লাইওভার। চারদিকে আর্তনাদ, কান্না, চিৎকার, রক্ত, ভিড়, ঠেলাঠেলি, পুলিস গাড়ির সাইরেন। ও কই?

লেখক ~ পার্থ ঘোষ
#AnariMinds

অমৃতস্য পুত্রী

ছবিটা যেদিন তোলা হয়েছিল সেদিনটা কিন্তু অন্য যেকোনও দিনেরই মত শুরু হয়েছিল। কোনও নতুনত্ব কিছু ছিল না। অন্য আর পাঁচটা দিনের সাথে সেদিনের পার্থক্য বলতে, অনেকদিন পর সেদিন সকালে ঘুম থেকে উঠেই দুটো পাখি দেখেছিল তিষ্যা।

লেখিকা ~ পিউ দাশ
#AnariMinds

একেই কি বলে চাকরি ~ স্টেপ ~২ ~ ন-লেজ ট্রান্সফার

এই লেখার শুরুতেই বলেছিলাম , আমরা ভবঘুরে, আমাদের ইন্ডাস্ট্রি তে একটাই কন্সট্যান্ট  – ” চেঞ্জ ” । তো আজ যে আপনার পাশে বসছে হটাৎ দেখবেন সে বসছে না  তার জায়গায় নতুন একজন , আবার সে কিছুদিন পর দেখবে আপনি বসছেন না ওর পাশে । নতুন ঘরের বাসিন্দা আপনারা তখন , কেয়ার অফ নতুন কোম্পানি । তো যখন ই কেউ পাতা ফেলে (পড়ুন রেজিগনেশন দেয় )  বা ছুটি তে যায় একটা কেটি প্ল্যান অবশ্যম্ভাবি । মোটিভ সিম্পল, একটা ছোট ক্রাশ কোর্স করিয়ে একটা ব্রেইনের ক্লোন বানানো আর কি ।

#AnariMinds #ThinkRoastEat

খবর কিছু খবর

তো , ঝালে ঝোলে অম্বলে , বিজেপি – তৃণমূলে, এরকম চলছে চলতে থাকুক । আমাদের খবর নিয়ে কথা ,ওটা না পড়লে যে পিছিয়ে পড়বো ! সো , ঘন্টাখানেক সঙ্গে থেকে নিখাদ নিজের রসবোধের যত্ন নিন ,যুক্তি তর্কের দরকার নেই !! অন্তত আপনার সকালের সবজি বাজার , মাছের বাজার , ছেলের স্কুল এসবের মাঝে আপনাকে দুনিয়া টা ঘুরিয়ে আনছে মাত্র কিছুক্ষনের মধ্যে !! তাই , “বর্তমানে “ থাকুন , “ আনন্দে “ থাকুন , “প্রতিদিন“ “সকালবেলা“ খবরের কাগজ পড়তে থাকুন !!
#AnariMinds #ThinkRoastEat

একেই কি বলে চাকরি ? ~ স্টেপ-১- অনবোর্ডিং

আমরা দুটি দেবশিশুর জন্য নন্দনকাননে পারিজাতের নিচে ৬০ জন সখা – সখি (পড়ুন আই টি  ইঞ্জিনিয়ার ) অপেক্ষা করছে  । আমরা কাল-ই রওনা হয়ে যায় যেন , একজন সখা মর্ত্য লোকে এসেছিলো কিছু সাংসারিক কর্তব্য পালনে ( পড়ুন বাবা-মার সাথে দেখা করতে)। আমরা যেন তার সাথেই কাল পুষ্পক রথে রওনা দি । আরে মশাই , ট্রেনের জেনারেল কম্পার্টমেন্ট আবার কি ? উঃ এতো সুন্দর ছন্দ টা কেটে দিলেন তো পার্থিব আলোচনা এনে । চলতে থাকুন  ( পড়তে থাকুন) ।

#AnariMinds #ThinkRoastEat

Love Spirals

Trailing behind these sweet feelings, quite faithfully, jealousy also made its way into my heart. Any girl talking to Gourav, or even just getting a smile from him, made my heart cry out in pain. I would die a thousand deaths if he showed any extra attention to anyone. Many nights, I would cry in my room in despair just imagining him with someone else.

Author ~ Snigdha Sahoo
#AnariMinds #ThinkRoastEat

হ্যাপি বেঙ্গলি নিউ ইয়ার

কালকেও আপনার মেয়ে বাড়ি ফিরতে দেরি করলে আপনার মাথায় খারাপ চিন্তায় আসবে , একটা ভয়হীন আকাশ কি দেওয়া যাবে নতুন বছরে ?

নতুন বছরে কি ফুটপাথের ভিখারি টা ভালো ভাবে খেতে পারবে? ওদের কাছে নতুন , পুরোনো সব দিন এক ।

অনেক কিছুই পরিবর্তন হয়তো হবে না । নতুন বছরে সব একই থাকবে , শুধু যেটা বদলাবে – আপনার দেয়ালে টাঙানো ক্যালেন্ডার ,আর একটা বছর শুধু বেড়ে যাবে , আপনার ,আমার , আমাদের সব্বার জীবনে ।

#AnariMinds #ThinkRoastEat

বে-জাত

রেজাউল একটা টুপি পরে আসতো খেলতে , অনেক তোয়াজ করে , ৩ টা মার্বেল দিয়ে একদিন ওটা বাগিয়েছিলাম । সদর্পে বাড়িতে ঢোকার পর ই বুঝলাম কি একখান এটম বোমা নিয়ে এসেছি , মা ওটা ছিনিয়ে সরিয়ে রেখে দিলো যাতে বাবা দেখতে না পায় – কিন্তু ব্যাড লাক খারাপ । বাবার নজরে পড়েই গেলো – তারপর কিছু মধুর ভাষণ -“রিন্টু একটা কুলাঙ্গার, বংশের মুখ ডোবাবে ইত্যাদি ইত্যাদি , ” । কারণ টা বুঝতে আমার অনেক দিন লেগেছিলো , মা বুঝিয়েছিল ওই টুপি রেজাউল রা শুধু পরে , আমার পড়া উচিত না । পরে এক মন্দিরে গিয়ে দেখেছিলাম ওখানেও পুরোহিতরা টুপি পরে , মোদ্দা কথা ধর্ম প্রচারী রা কোনো না কোনো ভাবে আমাদের টুপি পড়িয়েই ছাড়ে ।

#AnariMinds #ThinkRoastEat

Speak Up

If this is what believing in one religion teaches me, I am better off any religion. If my God cannot tolerate another human just because he/she prays to a different God, then I don’t believe my God even exists!

Author ~ Snigdha Sahoo
#AnariMinds #ThinkRoastEat

নাম

আজ, সময়ঘড়িটা কবজিতে বাঁধতে বাঁধতে তাই আপন মনে হাসছিলেন বাপনবাবু। এতদিনে তাঁর কৌতূহলের নিষ্পত্তি হতে চলেছে। গত কয়েকদিন টুকরো-টুকরো এদিক ওদিক করে দেখে নিয়েছেন, দিব্যি কাজ করছে তাঁর যন্ত্র। তিরাশির ক্রিকেট বিশ্বকাপের খবর রেডিওতে শুনেছেন, আবার দুহাজার তেত্রিশের বেহালা মেট্রোর সমাপ্তিও দেখে এসেছেন। এখন শুধু একটাই কাজ বাকি – চলো হাসপাতাল!

লেখক ~ সুশ্রুত চক্রবর্তী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

বটের ঝুড়ির নাগরদোলা

হুতুম পেঁচা , শালিক বুড়ো ,
বুড়ো আংলা ,তারিণী খুড়ো ।
রাজা , কোটালের পক্ষিরাজে ,
ঠাম্মার ঝুলি বর্ষা সাঁঝে ।।
#Rhymics #AnariMinds #ThinkRoastEat

এই মদ যদি না শেষ হয়

আপনি কি মাতাল? নাকি মদ টা ভালবেসে খান?? নাকি জাস্ট খাওয়ার জন্য খান? আমি বলে দিচ্ছি…  ধরুন আপনি এই লেভেল এর ল্যাধখোর যে বিয়েবাড়ি থেকে মেনু কার্ড ও নিয়ে আসেন যাতে বাড়ি এসে “কি খেলি কি খেলি” করে সবাই যখন মাথা টা খায়, আপনি ওই নিষ্পাপ কাগজ টা তুলে দিয়ে শান্তিলাভ করেন।

লেখক ~ ছন্দক চক্রবর্তী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

শুক_বলে_ওগো_”শাড়ি”

না না, এটাই এই শাড়ির ইউ এস পি। এর যে আঁচল টা দেখছেন সেটা জামদানী ধাঁচের, আর পাড় টা পিওর বেনারসি, বডি পুরো হাইব্রিড।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ভূত আমার পূত – গল্প ৫ – লন্ডনে গণ্ডগোল (শেষ পর্ব)

দিনক্ষণ ঠিক করে পৌঁছে গেলাম। রাত তখন ১ টা। ২৩ তলা বাড়ির ছাদে দাঁড়িয়ে মনে হল গোটা শহর আমাকে হাত বাড়িয়ে নিষেধ করছে। কিন্তু তখন আমি মনস্থির করে ফেলেছি, আর ফিরব না। শীতে কাঁপতে কাঁপতে এগোলাম ছাদের পাঁচিলের দিকে ধীরে ধীরে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ভূত আমার পূত – গল্প ৫ – লন্ডনে গণ্ডগোল

দেখাশোনা, এগ্রিমেন্ট, ডিপোজিট এইসবের শেষে এক শনিবার বিকেলে লটবহর নিয়ে হাজির হলাম আমার নতুন বাসস্থানের সামনে। পাক্কা ব্রিটিশ ধাঁচে তৈরি পুরনো আমলের দোতলা বাড়ি, দেখেই মনে হয় কয়েকবছর আগে রিমডেলিং করা হয়েছে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

আমি মদ বলছি

কোল্ড্রিনক দিয়ে মদ খাওয়া টা ছাড়ুন…কোক এর বোতল উপুর করে বাথরুম এর কমড পরিষ্কার করা যায় কিনা জানিনা, তবে আপনাকে ঘোড়া থেকে হাতি করতে পারে ওই সোডা-গোলা-কোলা – এটা একদম সিওর কাকা।

লেখক ~ ছন্দক চক্রবর্তী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

চির উন্নত মম শির

তো আরও বেশ কিছু অপশান আছে তো এই বহুতল গুলোর কাছে। বাঞ্জি জাম্পিং এর ব্যবস্থা করতে পারে, সোঁওওও করে পড়তে পড়তে নিচে দাঁড়িয়ে থাকা ট্যাক্সির সামনে এসে জিজ্ঞেস করবেন, “সায়েন্স সিটি” যাবে?” উত্তরে “৫০ টাকা এক্সট্রা দিয়ে দেবেন” শুনেই আপনি আবার পোঁওওও করে ওপরে উঠে যাবেন।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

শান্ত হয়ে বোস্ বাবা

বোস কোম্পানি খুব ফলাও করে লেখে নয়েজ ক্যানসেলিং হেডসেট্ এর কথা।তা আমার এনআরাই বৌ আমায় একটা বোসের অন ইয়ার হেডসেট এনে দিয়েছিল। একদিন ভাবলাম এই কোলকাতার রাস্তার অবাঞ্ছিত শব্দ এড়াতে […]

হিস্ট্রির_মিস্ট্রি- ১১ / যে মানুষের হাতদুটো ছিল ঈশ্বরের তৈরি- ৪

– মাফ করবেন হোলি ফাদার, কিন্তু আমি বলতে বাধ্য হচ্ছি, আপনার কি মতিভ্রম হয়েছে?

– কেন বলুন তো?

– আপনি এই কাজটা দেবেন মিকেলকে?

– হ্যাঁ কেন? এই সিলিং তো ওরই আঁকা, দেওয়ালেও আঁকতে ক্ষতিটা কি?

– সে পঁচিশ বছর আগের কথা, গত পঁচিশ বছরে কি কি হয়ে গেছে জানেন?

লেখক- অনির্বাণ ঘোষ

হিস্ট্রির মিস্ট্রি- ৯ / যে মানুষের হাত দুটো ছিল ভগবানের তৈরি- ২

টেবিলের ওপরেই শোয়ানো আছে যে মৃতদেহটা তার থেকেই আসছে সরু রক্তের ধারা। গলার নিচ থেকে কোটিদেশ অবধি লম্বালম্বি ভাবে চেরা। ভিতরের অন্ত্র বার করে নেওয়া হয়েছে। ফাঁকা পেটের মধ্যেই সোজা করে বসানো আছে মোমবাতিটা। আর তার আলোয় এক নিবিষ্টে কাজ করে চলেছে এক যুবক। হাতে একটা ছোট ফরসেপ আর ধারালো ছুরি, চলছে দেহের ডান হাতের ব্যবচ্ছেদ। যুবকের চোখে একরাশ আগ্রহ। রাত জাগা ক্লান্তির ছিটে ফোঁটা নেই সেখানে।

লেখক- অনির্বাণ ঘোষ

হিস্ট্রির_মিস্ট্রি- ৮ / যে মানুষের হাতদুটো ছিল ভগবানের- ১

বাক্স-টা খুব সাধারণ দেখতে হলেও যেভাবে সেটাকে বন্ধ করা ছিল তাতে অনেক যত্নের ছাপ। চারদিক পুরু টেপ দিয়ে মোড়ানো। ছুরি দিয়ে বাক্সটার একদিক কেটে খুলে ফেলল পেদ্রো। ভেতরে বাবল র‍্যাপের মধ্যে রাখা আছে কিছু একটা। খুব সাবধানে এবারে খোলা হল বাবল র‍্যাপের পরত। আর সেটা খুলতেই দৃশ্যমান হল এত আদর দিয়ে রাখা বস্তুটা। একটা ছোট্ট মার্বেল পাথরের টুকরো।

লেখক- অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

গানের গল্প সিনেমার গল্প – ১ – স্মোক অন দ্য ওয়াটার

অডিয়েন্সরা উদভ্রান্তের মতো ছোটাছুটি করছে এই বিধ্বংসী আগুন থেকে প্রাণ বাঁচানোর জন্য। ক্লদ ভাবছেন তিনি কি করে বাঁচাবেন এতজনকে, কিন্তু তিনি এখনও জানেন না যে আজকের দিন টা ইতিহাসে ঠাঁই পেতে চলেছে আর সেইসঙ্গে তিনিও বিখ্যাত হওয়ার পথে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ঝরে যাওয়া তারা

ফেনিল হয়ে ওঠে প্রতিটা সকাল ,
যে আলো জানলায় নিঃশেষিত।
পিঠে হাত রাখা সরীসৃপের চুম্বন ,
খোদাই করে নিত্য নতুন ক্ষত ।

#AnariMinds #ThinkRoastEat #Rhymics

নহি যন্ত্র আমি প্রাণী, শোনো IT-র এ কাহানী

পাতি বাংলায় আমাদের একটা নাম আছে জানেন তো? আই টি ভাইটি বা সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার না বলে আমাদের অনেকে ভালোবেসে “সফো” বলে ডাকেন, খুব মিষ্টি একটা নাম না! ভুলেও এই মিষ্টতার ফাঁদে পা দেবেন না, এরা কেউই আর মানুষ নেই, সবাই এক একটা যন্ত্রে পরিণত।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

একটু অন্য নেশা

তাঁর মুখেই শোনা। সত্যি ঘটনা বলেই দাবি করেছেন তিনি। সেটাই খানিকটা গল্পের আকারে লিখছি এবার।

করুণাময় আর মিষ্টি কুল

বাঁধাধরা খরিদ্দার হবার মস্ত সুবাধে হলো, মুখ ফুটে বলার আগেই জিনিস প্লেটে চলে আসে।

প্রেম এসেছিল, আবার

ঘুমভাঙ্গা চোখে সুতনুকা অবাক হলেন। সারা রাত ধরে ভেবে রাখা কথাগুলোও যেন হারিয়ে যাচ্ছে।

সাঁঝের পাখি

হয়তো তুই সাঁঝের আকাশ আমি আগুন পাখি , তোর মাঝেতে পাখনা মিলে , আমি ই ভেসে থাকি ।। ঢেউ-এর প্রেমে আলতো ভেলায় , যে তীরে তোর যায় তরী , বালির […]

আমার ডায়রী

নাইনে উঠে দুপুরের সিনেমার ঘটনাতো আর লিখে রাখা যায়না। আর স্যারের কোচিংয়ের মনোকষ্টই বা সব বলি কি করে।

সুপ্তনীড়

মায়ের কথার মাঝেই অনুপম বলে উঠলো- “ভাল্লুক ? তোমাদের সময় টেডি ছিল নাকি ? জানো মা আজ টেডি ডে ।” – আসলে অনুপম প্রসঙ্গ চেঞ্জ করতে চাইছিলো , যাতে মা আর না কাঁদে | ওর ও মন ভারি হয়ে এসেছে , ছোটোবেলার মামাবাড়ির স্মৃতি ও এই বাড়ির সাথেই মিশে ধুলো হয়ে গেল ।

#AnariMinds #ThinkRoastEat

রাজায় রাজায় যুদ্ধ – ১ – মৃত্যুর একদিন আগে

স্যান্ডি এসে শুয়ে পড়ল আবার দৈত্যের পাশে। ফিউজ থেকে কিছুই বোঝা যাচ্ছে না। অদ্ভুত এক অনুভূতি আসছে মনে। যতই মন শক্ত থাকুক না কেন, খালি মনে হচ্ছে একটু বাদেই প্রচন্ড বিস্ফোরণের শব্দে কেঁপে উঠবে চারিদিক, দুজনের দেহ ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে ছড়িয়ে পড়বে চারিদিকে, কালকের সকাল আর দেখা হবে না।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

আত্মার বিস্ময়

একটি পীনোন্নত পয়োধরা তন্বী চেঁচিয়ে তার গেভারা টিশার্ট আর ওয়ারকার্গো পোশাক পরিহিত ঝুঁটি বাঁধা আঁতেল মর্দ সাথীকে বলল “চল্ চল্ ওদিকে সিঙ্গার পোটা এসেছে, একটা সেল্ফি তুলি”।

রোজনামচা

“ মুখপোড়া, জীবনটাকে জ্বালিয়ে পুড়িয়ে শেষ করলে গা । হাতের কুটোটি নাড়বে না, বসে বসে শুধু কাগজ মুখস্থ করবে আর এই শেষ বয়সে এসে সক্কাল সক্কাল কাজের সময়ে নোংরা নোংরা কথা ! কোন মুখের আগল নেই, মুখপোড়া মিনসে ! ছেলেটা শুনলে লজ্জার একশেষ হবে । বেরোও এখান থেকে “

হিস্ট্রির মিস্ট্রি-১৫ ভালোবাসার মৃত্যুরা

সব হারিয়েছে ওফেলিয়া, আজ ও বীতশোক। পরিস্থিতির আঘাতে ওর মস্তিষ্কেও জট পাকিয়েছে যে। সেখানে ভূত,ভবিষ্যত, বর্তমান… কিচ্ছু নেই। ওফেলিয়া উন্মাদ হয়ে গেছে। ওর আত্মাটা আর নেই যেন ওর শরীরে। তাই ছোট নদীটায় যখন ও আজকে পরে গেল তখন আর উঠে আসার কোন চেষ্টা ছিল না। চারপাশে নুয়ে থাকা রঙিন ফুলগুলোও টানেনি আজ ওকে।

এই গল্পটা পড়বেন না

না না, ভুলেও পড়বেন না, প্লিজ কথা শুনুন। বারণ করছি, হাতজোড় করছি। পড়া শুরু করে ফেলেছেন বুঝতে পারছি, কিন্তু নিষেধ শুনছেন না, পরে আমাকে দোষ দেবেন না। এখনও সময় আছে, স্ক্রোল করে বেরিয়ে যান।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ভ্যালেন্টাইন দেহি নমোহস্তুতে

ভ্যালেন্টাইন্স ডে-র আগে অবশ্য কুল খাওয়ার কোন বাধা থাকে না। তবে আজকের দিন টা স্পেশাল। শাড়ি তো অন্য দিনও মেয়েরা পরে। তবে সজারুর মনে হয় বাসন্তী শাড়ি তে মেয়ে গুলো হঠাৎ আজ কেমন যেন অনেকটা ম্যাচিওর হয়ে ওঠে।

লেখা ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

আমার শীতের আদরটা

উঠোন ময় ছেঁড়া ছেঁড়া তুলো উড়ছে। আর একটা অদ্ভুত গন্ধে ভরে আছে চারপাশটা। ওই তুলো এর পরে ঢুকে পড়বে শাড়ীর মাঝে। মোটা লাল সুতো দিয়ে মোড়া হবে তার চারপাশ।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অনুরাগ

দূর থেকে প্রেমে জন্মবদল, আবার ফিরবো দেখো;
ততদিন তুমি আবেগী বাষ্পে
পরিনত হতে শেখো।
#Rhymics #AnariMinds #ThinkRoastEat

একখান পেমের গপ্পো

হাড্ডি কে ছেড়ে দুই কাবাবের জমপেশ লীলাখেলা শুরু হল এবার। সাত্যকি মিলি জুটির নাম শোনেনি এমন ছেলে মেয়ে খুঁজে পাওয়া ভার। তবে আদর করে মিলি কে একটা স্পেশাল নামে ডাকে সাত্যকি, সেটা ওরা দুজন ছাড়া শুধু আমিই জানি, সেটা হল “সনপাঁপড়ি”, নামকরণের কারণ আমায় শুধাবেন না প্লিজ।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Pre-Wedding

– “Dirty mind! Will observe your self control then. I anticipate a birthday celebration before first anniversary!”
– “A blessing or a curse? Cousins are planning to put cam in our room.”

Author ~ Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

বিলম্বিত লয়

সে যাইহোক, আজ সন্ধেবেলা সায়ন এসে বসলো পার্কের কোণার দিকের বেঞ্চ টায়। সকালে এই অঞ্চলের অনেকেই আসে মর্নিং ওয়াক করতে, আবার বিকেলের দিকটায় প্রেমিক যুগল দের ভিড়। এদের সবার নজর এড়িয়ে কোণার দিকের বেঞ্চ টাই সায়নের বড় পছন্দের, ওকে কেউ দেখতে পায়না, কিন্তু ও প্রায় সবাইকে দেখতে পায়।

লেখক ~ অয়ন ভট্টাচার্য
#AnariMinds #ThinkRoastEat

স্বপ্ন

কিন্তু উপায় নেই, গোয়া তাকে যেতেই হবে আসলে ওর বস মানে মিঃ ডিসুজা এই গোয়া যাওয়ার প্ল্যান টা করেছেন তাই না গেলে খারাপ দেখাবে, তাছাড়া সামনেই ওর প্রমোশন পাওয়ার একটা সুযোগ আছে। মা’কে দেখতে যাব এই অজুহাত দিয়ে প্রমোশন পাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ টা হাত ছাড়া করতে চায়না।

লেখক ~ অয়ন ভট্টাচার্য
#AnariMinds #ThinkRoastEat

শক্তি

ঘরের বাইরে বেরিয়ে যায় পাখি। নিজের রূপকে সাদরে গ্রহণ করে সে, কারণ এই সময় যদি সে নিজে ভেঙে পরে তাহলে মা বাবা কে সামলাবে কে? তার কোনো দুঃখ নেই, সে হারতে শেখেনি কোনো দিন। আর পাখি জানে একমাত্র সে নিজেই যে নিজেকে ছেড়ে কোনো দিন যাবে না।

লেখিকা ~ পায়েল ব্যানার্জী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

যখন আনাড়ি ছিলাম

এই কিক টাই দরকার ছিল। ওয়াটস্যাপ-এ মেসেজ করলাম ভিমু ওরফে আমাদের স্কুলের বন্ধু অভিমন্যু কে। বলতেই দিয়ে দিল নাম্বার টা। কারণ অবশ্য জিজ্ঞেস করল একবার। কিন্তু জবাব দেওয়ার মতো সময় ছিল না।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

হোক না আবার

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat #Rhymics

ভূত আমার পূত – গল্প ৪ ~ কার্নিশ

এই ঘটনার পর থেকেই অ্যাপার্টমেন্ট জুড়ে আর এক কাণ্ড শুরু হল। রোজ রাত ৩ টে থেকে ৩:১০ এর মধ্যে সবার ফ্ল্যাটের বাইরের গ্রিলের তালা বেশ ঝনঝন করে নড়ে উঠতে থাকল। প্রথমে সবাই ভেবেছিলেন যে মাঝরাতে কারুর কোনও এমার্জেন্সি হয়েছে হয়তো। কিন্তু পরে সোসাইটির মিটিং-এ জানা গেল ওইসময় কেউই বাইরে বেরোয় না।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ভূত আমার পূত – গল্প ৩ ~ কড়ে আঙুল

যখন কেউ পজেস্ড হয়, মানে কাউকে ভুতে ধরে, তখন তার কড়ে আঙুলের ডগা চেপে ধরে থাকলে আত্মা সেই দেহে বেশিক্ষণ থাকতে পারে না, বেরিয়ে চলে যায়। এই বিশ্বাস চরণের বাড়ির লোকেদের, আগেও এটা নাকি অনেকবার প্রমাণিত হয়েছে। বোন এই জিনিসটা করার সাথে সাথে নতুন বৌয়ের কেমন একটা অস্বস্তি লক্ষ্য করা গেল।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ভূত আমার পূত – গল্প ২ ~ ফরাসী হোটেল

হৃৎপিণ্ড টা খুলে হাতে চলে আসবে মনে হচ্ছে। এক মুহূর্তের জন্য মনে হল ব্যালকনি দিয়ে নিচে নামার কোন রাস্তা পাওয়া যায় কিনা। পাশের ব্যালকনি টাও বেশ দূরে। বেশ খানিকটা সাহস সঞ্চয় করে আমার নর্মাল খাট ওয়ালা ঘরের দরজার হাতল ঘোরালাম, খুলে গেল। পর্দা সরিয়ে ঘরে ঢুকলাম।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ভূত আমার পূত – গল্প ১ ~ আমার জানলা দিয়ে

সাহস করে গিয়ে জানলাটা বন্ধ করলাম। বেশ কিছুক্ষণ বাদে ঘরটা স্বাভাবিক হল। মাথায় কুচিন্তা ঘুরপাক দিতে শুরু করল। শুনেছি ভুতুড়ে হাওয়া হিমেল হয়, কিন্তু এই হাওয়া টা তো গরম ছিল। এই কনকনে শীতের রাতে গরম হাওয়া কেন ঢুকল। পাশের বাড়ির তন্ত্রসাধনায় কোনো পিশাচ সেঁধিয়ে গেল না তো আমার ঘরে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

জগাখিচুড়ি

অন্যেরা আদর করলে দেখতে নেই, তাই চাপা দিয়ে দিন, আর ১০ মিনিট আড়মোড়া ভেঙে নিন। হঠাৎ খেয়াল পড়লে ঢাকা খুলে খুন্তি টা কে স্যাট্ করে নিচে ঢুকিয়ে দিন সবাইকে ভেদ করে, আর খুঁড়ে খুঁড়ে নিচের পোড়া অংশ গুলো তুলতে থাকুন, মাঝে ওদের একটু জল খাওয়ান, ওরা হাঁপিয়ে গেছে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ডিম্বানু

ভরসা হল গিয়ে তাই ডিম। সেই লর্ড কার্জনের আমল থেকে দিনেরাতে প্রোটিনের ব্যালেন্স বজায় রেখে চলেছে। আরে ভাই, হঠাৎ মাথায় এল লোকটার নাম, তাই বললাম, সবসময় সন্দিগ্ধ হয়ে থাকেন কেন, আরাম করে পড়তে থাকুন।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

এ ফর অ্যাপেল

আপেল খানা জুত করে ধরে একখানা বড় কামড় বসাতে গিয়েই চোখ পড়ল রাস্তার উল্টোদিকের ফুটপাথে। ছেলেটা বিট্টুরই বয়সী হবে, একদৃষ্টে তাকিয়ে বিট্টুর হাতে ধরা আপেলটার দিকে। পরনের জামা টা নিজের বাবা বা কাকার হবে হয়তো, তাও আবার ছেঁড়া ফাটা তাপ্পি দেওয়া, আর সাথে কোনরকমে কোমরে ঝুলে আছে কালো প্যান্ট।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ভালো আছি

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

স্বপ্ন

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

শুভদৃষ্টি

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

সীমানা ছাড়িয়ে

লেখিকা ~ প্রাপ্তি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

শীত ও প্রিয়তমা

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

সেতু

লেখিকা ~ প্রাপ্তি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

সামাজিক

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

রেস

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

প্রথম প্রেম

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

পরিহাস

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

পিছুটান

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অপেক্ষা

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

নবজন্ম

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Move On

Author ~ Shantanu Das
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মায়ের থেকে শেখা

লেখিকা ~ প্রাপ্তি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

কাটা ঘুড়ি

লেখক ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ঝন্ড জিন্দেগি

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ফুলশয্যা

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ফিরে পাওয়া

লেখক ~ সৌমিক পাল
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ফাঁকি

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

একটা ভূতের গল্প

লেখিকা ~ স্নিগ্ধা
#AnariMinds #ThinkRoastEat

একদিন

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

দুই বন্ধু এবং একটি ভাল্লুক

লেখিকা ~ কথাকলি মুখার্জি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

কাপল

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

বোধ

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

বাঁঁচা মরা

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

হিস্ট্রির মিস্ট্রি – ৩ ~ ঈশ্বরের ফল

এই ফলটাই সেটা যা আদম ইভের জ্ঞানচক্ষু খুলে দিয়েছিল, দেবতা ভয় পেয়েছিলেন সেদিন, এই ফলই নিউটনের হাতে তুলে দিয়েছিল মহাজাগতিক রহস্যের চাবিকাঠি, আর এই ফলই স্বাক্ষী থাকল ট্যুরিং এর শেষ মুহূর্তের, যেদিন বিজ্ঞান হেরে গিয়েছিল ধর্মের কাছে। ঈশ্বর আর মানুষের টানাপোড়েন চিরন্তন, সৃষ্টি বার বার চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে স্রষ্টাকে। আর এই একটা ছোট লাল ফল তার সাক্ষী থেকেছে যুগে যুগে।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

হিস্ট্রির মিস্ট্রি -২ ~ শেষ ভোজের রহস্য

যীশু আর তার ডানদিকের মানুষের মাঝের ফাঁকটা লক্ষ করেছেন, অদ্ভুত রকমের বেশি না? বাকিদের দেখুন, লিওকে বাকিদের বেশ কসরত করে আঁকতে হয়েছে, গা ঘেঁষাঘেঁষি করে বসে আছে তারা। সন্ত থমাসের তো শুধু মুন্ডু আর ডানহাতের তর্জনী ছাড়া আর কিছু দৃশ্যমান নয়। তাহলে এতো বড় জায়গা মাঝখানে ছেড়ে রাখার অর্থ কি?

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

হিস্ট্রির মিস্ট্রি – ১ ~ দেবতা/দানব

-আমি আগেও এখানে এসেছি, বসেছি আপনার সামনে, তিনবছর আগে। তখন এই দেওয়ালটা প্রায় ফাঁকা ছিল।
লিওনার্দো বিদ্যুতপৃষ্ঠ হলেন এবারে, আরে তাই তো! এই সেই সৌম্যকান্তি পুরুষ, যাকে দেখে তিনি সাতদিন ধরে একটু একটু করে ফুটিয়ে তুলেছিলেন.

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

হিস্ট্রির মিস্ট্রি – ১০ ~ আদমের জন্ম

ঈশ্বরের পৃথিবী সৃষ্টি, মানুষের জন্ম, তার পদস্খলন, তার ঈশ্বরের থেকে দূরে চলে যাওয়া আর সব শেষে সেই আগ্রাসী বন্যা, এই গল্প গুলোই ছড়িয়ে আছে সিলিং জুড়ে। কিন্তু এমন ফ্রেস্কো তো আগে কখনও কেউ দেখেনি? একে কি ফ্রেস্কো বলা চলে? উজ্জ্বল রঙের ব্যাবহার চারিদিকে। তুলির নিখুঁত টানে তৈরি হয়েছে মানব শরীর। একটা দুটো নয়, তিনশো তেতাল্লিশটা ! সেই শিল্প এতো সুন্দর আর এতো জটিল গোটা সিলিংটা ভাল করে দেখতেই হয়ত লাগবে কয়েক সপ্তাহ। এক জন শিল্পী একা এমন কাজ করলেন কিভাবে! কোন শক্তিতে হল এমন অসাধ্য সাধন?

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

হিস্ট্রির মিস্ট্রি – ৬ ~ অপয়া আজকের দিনটার কথা

ড্যান ব্রাউনের বই যারা পড়েছেন তারা এতটা পড়ে ভাববেন এ আর নতুন কি কথা, ব্রাউনই তো লিখেছেন যে ফ্রাইডে দা থার্টিন্থের অপসংস্কারটা এই ঘটনা থেকেই এসেছে। কিন্তু এই তথ্য যে ভুল।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

হিস্ট্রির মিস্ট্রি – ৫ ~ মোনালিসা কোথায়!

আঁন্দ্রের মুখটা ফ্যাকাশে, বেনেডিটের কথা গুলো কানে গেল না ওর। শূন্য দৃষ্টিতে ও তাকিয়ে আছে সামনের দেওয়ালটার দিকে। লাল দেওয়ালটাতে পাশা পাশি ঝোলানো আছে ছবি গুলো। শুধু একটা জায়গা ফাঁকা, সেখানে চারটে পেরেক পোঁতা আছে। ফাঁকা জায়গাটার দুপাশে ঝুলছে তিতিয়ানের আঁকা অ্যালিগরি অফ ম্যারেজ আর রাফায়েলের আঁকা সেন্ট জর্জ। আর দেওয়ালের রংটাও অনেকটা গাঢ়। আরেকটা ছবি যে এখানে ঝোলানো ছিল সেটা বুঝতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অপুর দুগ্গা

এ কি , দূর্গা মন্দিরের দরজা বন্ধ কেন ? তাহলে অপু যা ভয় করছিল তাই হয়েছে কি ?

কলমে ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

দেবীর দুশমনেরা

উফফ, আর বলিস না, সন্ধিপুজোর সময় যেই একটু ঠাকুরটা ঢেকেছে কাপড় দিয়ে, অমনি আমি এক ছুট। মাঝে ধর্মতলায় একটা লেবুর জলওলাকে দেখে বললাম এক গেলাস সরবত দাও, সে ব্যাটা মুখে একটা অদ্ভুত আওয়াজ করে দৌড় লাগাল। দিন কে দিন আকাট হয়ে যাচ্ছে পচ্চিমবঙ্গটা।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ, অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

আমার দুর্গা 

কিন্তু বয়স যত বাড়লো, ঘরটা তত বেশি বড় মনে হতে লাগলো। বইয়ের তাকগুলো কেমন যেন খালি আছে অনেক। দোকানে গিয়ে চানাচুর কিনে আনাটা মিস করি খুব।

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

পুজো আসছে…

বেশ কয়েকটা বছর আগে। তখন বাঙ্গালির মনে মানবিকতা এতটাও অবক্ষয় হয়নি। যাদবপুরে তখনও রাজনীতিটা এতো নোংরা জায়গায় যায় নি, তখনও মানুষ পার্কস্ট্রীটের রাস্তার মোড়ের ট্রাফিক পুলিশ কে জিজ্ঞাসা করতো, “দাদা এই প্রথম এখানে এলাম,মোক্যাম্বোটা যাবো কি করে?”

লেখক ~ সাবর্ন্য চৌধুরী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

তোমাদের পুজো

কিন্তু আমার কি দোষ বলুন তো? আমি প্রবল পরাক্রমী ছিলাম সেটা আমার দোষ! নাকি আমি চেয়েছিলাম আমার জাতিটা একটু সম্মান পাক, একটু শক্তিশালী হয়ে উঠুক – সেটা?

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অঙ্ক কি কঠিন

আমরা হয়তো বিউটিফুল মাইন্ড টিভি তেই দেখেছি, বা শকুন্তলা দেবীর বই ছুঁয়ে দেখেছি, কিন্তু আমরা খুব লাকি যে হাওড়ার কাসুন্দিয়া শিবতলার কাছে অশোকবাবুর মতো একজন অঙ্কপাগল লোকের হাতে আমরা সবচেয়ে কঠিন সাবজেক্ট টা এতো মজা করে শিখতে পেরেছি।

লেখক ~ অরিজিত গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ইয়ার্কি | A Tease | Bengali Short Film | Anari Minds

Tania is very stressed about not getting a job, but happy-go-lucky Ananda is adamant on not taking anything too serious. There is this difference in their school of thoughts, but that difference, also balances their lives together. Watch to find out how!

#AnariMinds #ThinkRoastEat #Yarki #BengaliShortFilm #HomeProduction

ধর্ম বনাম

আমার দেবতা পথের শিশুতে ,
ভিখারির দু মুঠো অন্নে ,
আমার দেবতা প্রতি খুশি ক্ষণে 
বুকের কোঠর স্পন্দনে ।

কলমে ~ আনন্দ
#Rhymics #AnariMinds #ThinkRoastEat

স্মৃতি

স্মৃতি তুমি এবার সুখের হও।
বাঁচবো আমি তোমার মাঝে এবার। 
কান্নাকাটি করছে এখন যারা, তারা যে খুব নিজের।
থাকবো আমি তাদের মাঝে সুখের হাসি হয়ে।

কলমে ~ শান্তনু
#Rhymics #AnariMinds #ThinkRoastEat

গড়িয়াহাট আর ঈশিতা

সেদিন খাওয়ার পর ঈশিতা কে মেট্রো অবধি ছেড়ে দিলাম আবার। ফেরার পথে ভাবতে লাগলাম কথা গুলো কে। আদৌ কি ঠিক বলেছে ও? নাকি আমি সত্যি এতোটাই ভুল। ওই গড়িয়াহাটের মোড়ের দাঁত ফোগলা দোকানদারটা যদি একটু হাসে তার জন্য কি এটুকু কষ্ট করতে পারবো না?

লেখক ~ সাবর্ন্য চৌধুরী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

যে ভাবনাগুলো ঘুমিয়ে থাকে

অতৃপ্তির পক্ষকাল পরে তৃপ্তি নেমে আসে,
আমাকে আর আগের মতো ডাকিস না কেন তুই?
ডাকনাম ধরে।
কেন বুকে চমক দিয়ে বলিস না
আয়, পাশে বোস একটু,
অছিলায় ছুঁয়ে দে আমার আঙুল গুলো।

কবি~  অনির্বাণ
#Rhymics #AnariMinds #ThinkRoastEat

মিঠিকাহিনী (আমার খুদে কন্যার কথামৃত)

– বাবাই বাবাই, গান চালিয়ে নাচবে?
– ইংলিশে বল।
– ভাভাই, ঘান ছালিয়ে ওয়াক্সফ্রবার্ক্সট্রেন্সিক,….. নাচবে?

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Call-কলানি (IT স্পেশাল)

আজ আমরা ওপিয়াম এ মুখার্জী দা কে স্পেশাল ট্রিট দিচ্ছি , প্রথমে না না করে এখনো পর্যন্ত ৪ পেগ উড়িয়ে দিয়েছে মুখার্জী দা । কেন ট্রিট দিচ্ছি ?? উহঃ সব কিছু কি আর এক্সপ্লেইন করা যায় মশাই ।

লেখক ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ইয়ার্কি – Bengali Short Film – Releasing 2nd September 2017

আর মাত্র কয়েকদিন, ২রা সেপ্টেম্বর আসছে আমাদের হাতে গড়া প্রথম বাংলা শর্টফিল্ম !
চোখ রাখুন এই সাইটে, একটা দারুণ চমক আছে !

#Yarki #AnariMinds #ThinkRoastEat #BengaliShortFilm

শিকার

নিরাশ হয়ে লাল সিগনালের নিচে বাইক নিয়ে দাঁড়িয়ে আছি, এমন সময়ে পাশে একটা ট্যাক্সি এসে থামল। এমনিতে ময়দানের এদিকটা একটু অন্ধকার। তবু তার মধ্যেই দেখলাম ট্যাক্সির সবকটা কাঁচ তোলা।

লেখক ~ শুভ্র রাহা
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অফিসই মোদের বাড়ি, মোরা IT কর্মচারি

IT তে থাকার যে কি মজা, তার স্পর্শ আপনাদেরও দিতে চাই একটু। দৈনন্দিন খোরাকের মক্কা বলতে পারেন এই IT অফিস গুলো কে। শুধু একটাই অনুরোধ, প্লিজ কাউকে বলবেন না যে এটা আমার লেখা, কারণ HR রা এখন জাস্ট ছুতো খুঁজছে!

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

প্রবাসী

“তুমি জানো? কখনো ইন্ডিয়া গেছো ?”
” না ! যাবার খুব ইচ্ছে আছে । তোমাদের দেশ খুব কালারফুল , কালচারালি স্ট্রং , কত লাঙ্গুয়েজেস, কত ডিফারেন্ট , বাট স্টিল ইউনাইটেড । কত ফেস্টিভালস, এন্ড ওই ওই ফেস্টিভ্যাল
যেটাতে ক্র্যাকারস থাকে ?”
“দিওয়ালি । ” 
” ইয়েস , ইয়েস , আমার দারুন লাগে । ইন্ডিয়ান রা খুব ইন্টেলিজেন্ট হয় , ইন্ডিয়ান রা আমি দেখেছি এটলিস্ট ২-৩ রকম ভাষা সকলে বলতে পারে । তুমি ভাবো , আমরা এতো বড় দেশ , কিন্তু আমরা শুধু ইংলিশ ছাড়া কিছু জানি না ।”

কলমে ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

“পাতা” ঝরার মরশুমে – IT Special

অফিস জয়েন করল দেবু, ঝাঁ-চকচকে মাল্টিন্যাশনাল, সুইচ টিপলে জরজিয়ার কফি, সাউথ কলকাতার ট্যাঁস মামনিদের ফিটফাট ড্রেস থেকে আসা গুচির মন উদাস করা গন্ধ, করপোরেট পার্টি, ঢালাও মদ মাংস, মাস গেলে বাইশ হাজার টাকা মাইনে – আর কি চাই কাকা জীবনে!!

লেখক ~ ছন্দক চক্রবর্তী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

বলা বারণ

চিন্তা ভাবনা নাইকো মনে, বিন্দাস তাই,
বহু বাসনার বিলাস বাসায় বাজাই বাঁশি,
হাত পা তুলে হট্টমালার হয়রানি নেই,
সুর বেসুরের হিসেবও যে বন্দি আজি।

#AnariMinds #ThinkRoastEat #Rhymics

“পাতা” ঝরার মরশুমে – IT Special

অফিস জয়েন করল দেবু, ঝাঁ-চকচকে মাল্টিন্যাশনাল, সুইচ টিপলে জরজিয়ার কফি, সাউথ কলকাতার ট্যাঁস মামনিদের ফিটফাট ড্রেস থেকে আসা গুচির মন উদাস করা গন্ধ, করপোরেট পার্টি, ঢালাও মদ মাংস, মাস গেলে বাইশ হাজার টাকা মাইনে – আর কি চাই কাকা জীবনে!!

লেখক ~ ছন্দক চক্রবর্তী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

খুনি

আর সহ্য করতে পারেনা সুলতা… ঠাঁটিয়ে এক চড় কষিয়ে দেয় বড়বাবুর গালে… ছোট্ট পরীর চোখের সামনেই ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায় ওর মা আর বড়বাবুর … হিংস্র সিংহের মতন ঝাঁপিয়ে পরে বড়বাবু ওর মা এর উপর..

লেখিকা ~ উদিতি মজুমদার
#AnariMinds #ThinkRoastEat

খারাপ ছবির অ্যালবাম

দুবেলার খাওয়া, বছরের একটা জামা, আর বিয়েবাড়িতে পাঁঠার মাংস, অমিয়র ভেতরে যে আরেকটা অমিয় আছে সে কিন্তু এই নিয়েই দিব্বি কাটিয়ে দিচ্ছে। ওর একমাত্র শখের কথা তো বলাই হয়েনি আপনাদের। খুব,খুব গোপন শখ, সঞ্চারীও জানে না। সেটা হল খারাপ ছবি তোলার।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

কলিজা

লোকমুখে ফেরে বিভিন্ন কবরের পেছনে লুকিয়ে থাকা হাড়হিম করা সব প্রচলিত গল্প। তার সত্যমিথ্যা যাচাই করার চেষ্টা কোনদিনই করেনি মুন্নি। কারণ সময় কেটে যায় শুধু এই বেগমের সমাধির সামনেই।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

কিছু খুচরো লেখার চেষ্টা

নগ্নতাকে তুমি চিনেছ কিছুটা নিজের মত করে। ভালোবাসো নগ্ন শরীর। জীবন বিজ্ঞান বলতে বুঝতে জনন আর হরমোনের চ্যাপ্টার। সেই তুমি একদিন বড় হলে। এত বড় যে চারদিকের অনুভূতিগুলো তোমার হাঁটুর কাছে এসে থামল। এবার তুমি শরীর চিনলে।

লেখক ~ সুমন চক্রবর্ত্তী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অব্যক্ত প্রেম

কোনোভাবেই মেনে নিতে আপত্তি নেই যে আমি পরোকীয়া করেছি। হ্যাঁ, মিথ্যে বলছি না, পরকীয়া আমিও করেছি। হ্যাঁ হয়তো হাঘরের মতো না, তবে এক দুবার। অপরাধ…!! হ্যাঁ, অপরাধ বললেও বলা যেতেই পারে। কিন্তু প্রথম ভালোবাসাকে আজও ভুলতে পারিনি আমি। হয়তো প্রথম প্রেম এরমই হয়, সাথে না থেকেও হয়তো সারাজীবন রয়ে যায়।

লেখক- সাবর্ন্য চৌধুরী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

এই শ্রাবণ

আমারও বৃষ্টি তোমারই জন্যে নামে
কাদামাখা পায়ে পেরিয়ে বহুদূর
ভিজে চুপচুপে ভালোবাসায় আজ মিশে
ভেজা ডালহৌসি পাঠালাম নীল খামে।

#AnariMinds #ThinkRoastEat #Rhymics

ভয়

“দাদুউউউ!” ডাকতে যায় পিকলু… না আওয়াজ না… একটা ভয়মিশ্রিত বিকট আর্তনাদ বের হয় গলা থেকে! অসম্ভব ঘামছে ও এই কনকনে শীতের রাতেও…ছায়ামূর্তিটা এখনও এদিক ওদিক করছে… কি অস্থির হয়ে উঠেছে মুর্তিটা! এরম বাজে ভাবে ভয় পিকলু কোনদিনও পায়নি|
নাহ্! এভাবে আর কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকলে পিকলুর হয়ত হার্ট ফেলই করে যাবে!

লেখিকা ~উদিতি মজুমদার

#AnariMinds #ThinkRoastEat

10 Most Brilliantly Made Thriller Movies Which You Missed

Our in house movie freak has selected top 10 best thrillers which were the most underrated and went unnoticed. Please check out the trailers directly in this page itself.

DO NOT MISS THE SPECIAL TOP 5!

Author ~ Soumik Sarkar
#AnariMinds #ThinkRoastEat

টাকা চাই, ইতি WannaCry (একটি Ransomware এর কাহিনি)

হোমযজ্ঞের আগুন আর ধোঁয়ায় চোখে জল, গায়ে ঘাম, হাতে লাইসেন্সড ললনার হাত আর গলায় জব্বর একখান মালা নিয়ে কচি বরটা জাস্ট বাসরঘরে যেই ঢুকতে যাবে, ব্যাস! Ransomware attack!

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

সীমান্তে

কলেজের প্রথম দিন, গ্রাম থেকে প্রথম মফঃস্বলে এসেছে বিমল। পড়নে সাদা পাজামা, সুতির শার্ট, পায়ে হাওয়াই চপ্পল, মাথায় তেল দেওয়া চুল পরিপাটি করে আঁচড়ানো । ছোটোখাটো চেহারার বিমলকে ঢোলাঢালা শার্টে আরো বেঁটে লাগছিলো, মুখে ছড়ানো সারল্য, ভাষায় গ্রাম্য টান।

লেখক ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ম্যারিটাল রেপ

“শরীর ছুঁতে এই আকুলিটা বিরক্তিকে ডেকে আনতো, কিছুটা অধিকারের জন্ম দিয়েছিলো কুঁচকির আসে পাসে। কাজ শেষ, আবার যে কে সেই। পাশে বসে থাকা মানুষটার থেকে স্কাইপির মুখগুলো বেশি কাছের মনে হতো। কিন্তু বাঁধা একজায়গায়, আমি তোমায় বেসেছি ভালো।”

লেখক ~ সাবর্ন্য চৌধুরী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ওরে আমার ভাইটি, দিন ফুরোলো IT-র

রিষভ এর রোজনামচার একটা বিশেষ অংশ হল বিকেল ঠিক সাড়ে চারটের অসিত দার দোকানের “Chai Break” টা…এটা ওর একান্ত নিজের সময়, সারাদিন এর pending to do list টা শান্তি মত একবার ঝালিয়ে দু কাপ চা আর দুটো বড় গোল্ড ফ্লেক শেষ করে ওপরে চলে যায়..

#AnariMinds #ThinkRoastEat

বিষে বিষে নীল

শাখা প্রশাখা মেলেছে অন্যায়,
শিকড় খুঁজতে পাতাল প্রবেশ।
যে শিশু জন্মালো এই মুহুর্তে,
বুক ভরে টেনে নিয়েছে কার্বন ডাই অক্সাইড।
#AnariMinds #Rhymics #ThinkRoastEat

গন্ধবিচার

পচনতন্ত্রের সহজ নিয়ম, বায়ু কে বেরোতেই হবে, তা সেটা কখনো সকলের অজান্তে থুচ্চুক স্টাইলে, বা কখনো “রাজা পাধার রাহে হ্যায়” ভঙ্গি তে ডঙ্কা বাজিয়ে। গন্ধ ডিপেন্ড করে ইনগ্রেডিয়েন্টের ওপর, যত গুড় ঢালবে, তত মিষ্টি।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অটোগ্রাফ

“বাংলা গানের সবচেয়ে বড় রিয়্যালিটি শো, আমার বাংলা চ্যানেল আয়োজিত ‘সংগীতের সেরা প্রতিভার’ এ বছরের বিজেতা হল শঙ্কর সিংহরায়।” রাতের আকাশের রংটা সেদিন কালচে নীল নয়… আতশবাজীর রোশনাইতে রামধনু দেখেছিল শঙ্কর।

লেখক ~ তথাগত চ্যাটার্জী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Top 10 Bengali Short Films : Ready To Watch

Our movie review team has selected top 10 Bengali Short Films which you can directly watch here.
DO NOT MISS THE SPECIAL TOP 5!

#AnariMinds #ThinkRoastEat

পিছুটান

“কাকু আপনার চশমাটা…আরে আপনার তো লেগেছে!”.. একটি ছিপছিপে গরনের সুন্দরী তরুণী| কোনরকমে চশমাটা পরে…উঠে দাঁড়াল সুদীপ… রক্তে ভেসে যাচ্ছিল বাঁ চোখটা….তাই মুখটা ভাল করে দেখতে পায়নি ও…কিন্তু মেয়েটার চোখদুটো হুবহু তনয়ার মতন লাগল… কি জানি হয়ত আজ তনয়ার কথা বেশী ভাবছিল বলেই হয়ত…

লেখিকা ~ উদিতি মজুমদার
#AnariMinds #ThinkRoastEat

The Invitation

It was Nidhi’s idea to go for the sleeveless, backless choli and a slit right through the fish cut lehenga to show off her right leg. She said that, the more skin you show, the more the ex would regret.

Author ~ Snigdha Sahoo
#AnariMinds #ThinkRoastEat

পানুদার খপ্পরে ~ ১ম কিস্সা ~ নীল ছবি

যাই হোক, অনেক কাকুতি মিনতির পর শ্রীমতি সানি কে গেঞ্জির তলা দিয়ে পেটের মধ্যে ঢুকিয়ে ল্যাপকা হনহন করে বাড়ির দিকে পা বাড়ায়। আজ বাড়ি খালি। সন্ধ্যের পর কাকার বিয়ের ভিডিও দেখবার একটা আসর বসবে। তার আগেই কাজ সারতে হবে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

স্রোতের টানে

সপ্তাহখানেক আগেই কোনো একটা জরুরি দরকারে সাড়ে তিন হাজার টাকা দরকার ছিল স্রোতের, বাড়িতে বাবা মা না থাকায় সোজা এসে দাদুর কাছে দাবি রেখেছিলো। কিছুটা কিন্তু কিন্তু করেও টাকাটা দিয়ে দিয়েছিলেন ধৃতিমান, অনেকটা ভরসা করেই।

লেখিকা ~ অরুন্ধতি রায়
#AnariMinds #ThinkRoastEat

গপ্পো বলার গল্প

এই প্রশ্নের সঠিক উত্তর ত্রী-বর্ষীয় কন্যাকে দেওয়ার ধ্রৃষ্টতা আমার নেই, ১০ মিনিটের মধ্যে সেটা মায়ের কানে গিয়ে পৌঁছবে। তবে মাম্মা যে কাউকে খায়ে না সেব্যাপারে আমি নিশ্চিত।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মুক্তি

শুধু হারিয়ে গেছে অষ্টাদশীর কৈশোর। গ্রামের আল পথ দিয়ে আর দিগন্তরেখার দিকে ছুটে যায় না মিঠু, ঝিলের জলে ঢিল মেরে ঘূর্ণি খেলে না, বুড়ো বট গাছের দোলনা টায় আর চড়া হয়না ঘন্টার পর ঘন্টা, চাটুজ্জেদের ফলের বাগান থেকে আম, জাম, কূল আর চুরি করে না সে।

লেখিকা ~প্রাপ্তি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ভালোবাসার বুদবুদ

“কি হল.. চলে যাচ্ছো যে.. প্রোগ্রাম দেখবে না !!” চমকে পিছনে তাকাল অস্মি. . সুন্দর সুঠাম গঠন.. চোখা নাক…ঠোঁটের কোণে নির্ভেজাল হাসি…আর দৃষ্টিতে বেশ বুদ্ধিদীপ্ত ভাব; কোন ছেলের চোখ এত সুন্দর হতে পারে…

লেখিকা ~উদিতি মজুমদার
#AnariMinds #ThinkRoastEat

বাকিগুলো ধর্ষণ নয়

কবি ~ ডাঃ প্রদীপ্ত ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat #Rhymics

চার্নকদার গল্পগুচ্ছ- পঞ্চম কাহিনী- লেজ

জ্ঞান হওয়ার পরে দেখলাম তাঁবুর মধ্যে একটা অত্যন্ত নরম বিছানায় শুয়ে আছি।পাশের বিছানাটায় অঘোরে ঘুমাচ্ছে ভুতমুখো বাঁদর টা। তড়াক করে উঠে প্রথমে ব্যাটার গালে কষালাম একটা তিরাশি সিক্কার থাপ্পড়।নেওয়া হলো আমার প্রতিশোধ।

বৈষম্য

“এ হে হে ! যা যা …” – একটা মা ওদের কে চিৎকার করে ওঠে। বাচ্চা গুলো ভয়ে দৌড় পালায়, মা পার্কের গার্ড কে একটু হম্বি তম্বি করে আবার স্মার্টফোনে মশগুল হয়ে যায়।

লেখক ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মিথ্যে হলেও সত্যি

চোখ দুটো দিয়ে অবিরত অশ্রু বয়ে চলেছে। প্যান্টের পকেট হাতড়ে রুমাল টা বের করতে যাচ্ছিল সে, এমনসময় পিছন থেকে আসা একটা বেপরোয়া গাড়ি সজোরে ধাক্কা মারে তাদের গাড়িতে।

লেখক ~ শুভ্র রাহা
#AnariMinds #ThinkRoastEat

প্রেম টুকু বেঁচে থাক

কবি ~ ডাঃ প্রদীপ্ত ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat #Rhymics

ঘাতক

পরেরদিন সকালে শাওয়ার এর নিচে দাঁড়িয়ে এসব ভাবতে ভাবতে আনমনা হয়ে যায় অনিকেত, বাংলোর পিছনের বাগান থেকে মালিকে নীলীমার ফরমায়েশ দেওয়ার টুকটাক আওয়াজ কানে আসে।

লেখক- তথাগত চ্যাটার্জী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

জানিস আমি কে?

লেখিকা ~ উদিতি মজুমদার
#AnariMinds #ThinkRoastEat #Rhymics

অন্য ভ্যালেন্টাইন

– হুমম্, এমন ভান করছ যেন ধোয়া তুলসীপাতা। মনে পড়ে স্টেশানের ধারে বকুলগাছের তলায়….
– ওরে কে কোথায় আছিস রে? তুলে নে আমাকে…
– কেউ নেই গিন্নি, শুধু তুমি আর আমি। সেই বকুলবাসরের কোন রেজাল্ট আজ বাড়িতে নেই।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

খেলাঘর

সুসজ্জিত মুমুর শ্বশুরবাড়ির ড্রয়িং রুম। চার কাপ ধোঁয়া ওঠা কফির কাপ সামনে নিয়ে বসে আছেন অরুণ সেন ওর স্ত্রী সীমা সেন এবং বিমল দেব আর ওর স্ত্রী রিনা দেব। প্রথমেই কথা বলেন মুমুর শ্বশুর মশাই।

লেখিকা ~ করবী খাসনবিশ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ও প্রান্তে

তারপরে মানিব্যাগ থেকে ভিসিটিং কার্ড বার করে দিলেন, তখনই দেখলাম তোমাকে, মানিব্যাগের ফাঁক দিয়ে কয়েক মুহূর্তের জন্য উঁকি মেরেছিল ছবিটা, চিনে নিতে ভুল হয়নি…

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

পেটের টান

কাজ বলতে গর্ত খোঁড়া জায়গার পাশে দাঁড়িয়ে থেকে ছুটে যাওয়া গাড়ীগুলোকে পতাকা দেখিয়ে সাবধান করা। বেশ মজাই পায় সে। এইটুকু কাজের জন্য টাকা পাওয়া যাবে। তারপর দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে গাড়ীগুলোকে দেখতেও বেশ ভাল লাগে। মাঝে মাঝে অবশ্য ঠিকাবাবুর ফরমাশ খাটতে হয়। জল আনে দেওয়া, চা এনে দেওয়া – খারাপ লাগেনা।

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

My Dad & Facebook

Can I share my Gmail password with my Dad? Of course I can. But then I have to delete my Tinder account and stop premium membership of Pornhub, which I do not want.

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

জাগতে রহো

মাঝে বাবা ছেড়ে চলে গেলো মায়ের সঙ্গে দেখা করতে, চিরদিনের জন্য। আর বাড়িময় ফটোগুলোর সামনে ধুপ ধুনো দেবার দায়িত্ব দিয়ে গেল আমায়। প্রথাগুলো আরো যেন জাঁকিয়ে বসলো। কিছু বুঝতে পারার আগেই সংস্কারগুলো কখন যেন কু হয়ে গেলো।

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

রিটার্ন গিফ্ট

একে একে সবার কাছে গেল অলি। কেউ ওর হাত ধরে, কেউ আবার ওর গাল ধরে ওকে ছুয়ে দেখল। ওদের স্পর্শে একটা অদ্ভুদ উষ্ণতা আছে। ওদের জন্য মিষ্টি, ফল আর সুগন্ধি নিয়ে এসেছিল পিকুদা।

লেখিকা ~প্রাপ্তি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অশনি সংকেত

কবি ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat #Rhymics

খুকুমণি ও অনাত্মীয় (পার্ট ৩)

খানিকক্ষনের মধ্যেই দেখি একটা লাল রঙের ষাঁড় ঘরের মধ্যে ঢুকছে। আর তার পিঠে চেপে আছে একটা লোক, দুহাতে দুটো ক্রেডিট কার্ড। লোকটাকে দেখেই মেয়েটা হাত তালি দিতে দিতে উঠে দাঁড়ালো।

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

খুকুমণি ও অনাত্মীয় (পার্ট ২)

“মাটিতে বসলে ভালো ছবি আঁকা যায়। সেটাও জানোনা?” মেয়েটা দেখছি খুব রেগে গেছে। রাগী সেটা আগেই জানতাম, আজ দেখছি। “রবীন্দ্রনাথ, ভ্যান গগ, লেনার্দো একসঙ্গে মাটিতে বসে আঁকতো সেটাও জানোনা বুঝি।” আমার তো পায়ের নিচে থেকে মাটি সরে যাবার অবস্থা।

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

খুকুমণি ও অনাত্মীয় (পার্ট ১)

আর কয়েকপা এগোতেই আবার ধাক্কা। একটা ৯-১০ বছরের মেয়ে বসে আছে। মেয়েটাকে তো চিনি। আহা, চিনি মানে দেখেছি পেপারে, টিভিতে। নানা, রিয়ালিটি শো তে নয়। এ মেয়ে খুব গুণবতী। ছবি আঁকে, গান গায়, কবিতা লেখে, আরো কিসব করে যেন। মানে এমন কিছু ভালো জিনিষ নেই যে সে তা করে না।

লেখক ~ শান্তনু
#AnariMinds #ThinkRoastEat

25 Most Viewed Hindi Short Films : Ranked By Virality : Ready To Watch

Our movie review team has selected top 25 Hindi Short Films (ranked by number of youtube views) which you can directly watch here.
DO NOT MISS THE SPECIAL TOP 5!

#AnariMinds #ThinkRoastEat

স্বপ্নপূরণ

ঋজু হবার পর ওদের জীবন আনন্দে ভরে উঠেছে। ওরা নিজেদের ভালোবাসা চোখের সামনে বেড়ে উঠতে দেখছে। এই আনন্দের মাঝে মনের এক কোনে আশা রয়ে গেছে যদি একটা ফুটফুটে মেয়ে আসে ওদের মাঝে।

লেখিকা ~ সঙ্গীতা দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

আনাড়ি মন

লেখিকা ~ অরুন্ধতি রায়
#AnariMinds #ThinkRoastEat #Rhymics

ঘৃণ্য

তরতাজা মানুষ টা গান গাইতে ভালোবাসতো, আপনভোলা ছিলো, পরের দুঃখে ঝাঁপিয়ে পড়তো। সেই লোকটাকে অসহায় হয়ে পড়ে থাকতে দেখে মালা মুখে আঁচল দিয়েছিলো। যাদের জন্য সব কিছু ছেড়ে দিতে রাজি ছিল, তাদের কাছে চোর ডাক শোনাটা ও মেনে নিতে পারে নি।

লেখক ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

উচ্ছিষ্ট

লেখক ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

সময় অসময়

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

এক চিলতে হাসি

লেখিকা ~ কথাকলি মুখার্জী দত্ত
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

দ্যাখ কেমন লাগে

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

বাবা

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

অ্যালবাম

লেখিকা ~ কথাকলি মুখার্জী দত্ত
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

আদর

লেখিকা ~ অরুন্ধতী রায়
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

Dangal – Wrestling On My Mind : A Quick Review

A quick review of DANGAL released on 23rd Dec 2016.

Reviewer ~ Souparna Dutta
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ম্যাজাই

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

ওল্ড মঙ্ক

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

আজকে দিনটা বড়

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

10 Tips To Make The Most Of A Marriage Invitation – Don’t Miss The 7th one!

What is your main objective to visit an invitation? If it’s something else than “Having food” then you are a frustrated unmarried, or you don’t have any teeth left.

Author ~ Chhandak Chakraborty
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অস্তিত্ব

আসর জমেছে অনেক দিন পরে। চার বছর পর দাদা-বৌদি ফিরেছে দেশে, সাথে পুঁচকেটাকে নিয়ে। এতদিন ফেসবুকে দেখা ফটো আর ভিডিও কলের দূরত্ব কাটিয়ে সশরীরে একটা বছর আড়াই এর জ্যান্ত পুতুল পেয়ে বাবা মা যেন জীবন ফিরে পেয়েছে আবার।

লেখিকা ~ অরুন্ধতি রায়
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ঘরে ফেরার গান

মেয়ের করুণ মুখের দিকে তাকালো ইনায়ত, উত্তর দিতে পারল না কিছুই। সে শুনেছে সেনা জাওয়ান এক দল দুঃসাহসিক অভিযান চালিয়ে খতম করেছে কিছু মুজাহিদ গোষ্ঠীকে। বদলা নিয়েছে ইন্ডিয়া। জাতীয়তাবোধের জ্বরে কাঁপছে দেশবাসী।

লেখিকা ~ কথাকলি মুখার্জী দত্ত
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Moksha – A Short Story

Her mind travels back by 12 years, when she had looked at the same pair of eyes, pleadingly, which he had ignored. She recalled that frightful evening,

Author ~ Deblina Chowdhury
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Kahaani 2 : A Quick Review

A quick review of KAHAANI 2 released on 2nd Dec 2016.

Reviewer ~ Souparna Dutta
#AnariMinds #ThinkRoastEat

রঙ্গিন গোধূলি

কলেজে রক্তিম বাবুর থেকে এক ক্লাস নিচে পড়তো নীলিমা, অপরূপ সুন্দরী, লাল শাড়ি , লাল টিপ্ আর পিঠ ছাপানো একপিঠ চুলের বিনুনি দুলিয়ে যখন সে কলেজ এর ক্লাস এ যেত অনেকের মনে উঠতো হিল্লোল| অনেকের মতো রক্তিম বাবু ও ঘায়েল ছিলেন।

লেখক ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

বাজারি

লেখক ~ শান্তনু দাস, আনন্দ, স্নিগ্ধা
#AnariMinds #ThinkRoastEat #Rhymics

লাল বাতি

দুর্ঘটনার ৩০-৪০ second -এর মধ্যেই একটা patrolling police van ঘটনাস্থলে এসে দাঁড়ালো। “এইখানে এতো গোলমাল কীসের ? এক্ষুনি এখান দিয়ে মন্ত্রীর গাড়ি যাবে……….রাস্তা ফাঁকা করো সবাই। ”

লেখিকা ~ সমালী দাস চক্রবর্তী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Dear Zindagi – Gale Laga Le : A Quick & Honest Review

A quick review of DEAR ZINDAGI released on 25th Nov 2016.

Reviewer ~ Chhandak Chakraborty
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Those Few Hours – A Short Story

The only voice that kept ringing in his tympanum was of the doctor – “Pray to the Lord and all shall be fine !”

Author ~ Samali Das Chakraborty
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ট্রায়াল রুম

অতএব হাতে একটা সবুজ রঙের টিশার্ট, আর একটা গেরুয়া পাঞ্জাবি নিয়ে আমি রেডি ট্রায়াল রুমের লাইনে। ভিড় টাও আজ বড্ড বেশি। দাঁড়াতে হল আরও ১০ মিনিট। ট্রায়াল রুমের আয়না টা কিন্তু জমপেশ। নতুন জামা কিনি বা নাই কিনি, একটা সেল্ফি তো বানতা হ্যায়।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মুখ ও মুখোশ

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

আবর্ত

বাকি কয়েকটা দিন হুস করে কেটে গেল, রোজই টুনাইয়ের ফিরতে ফিরতে রাত হয়ে যেত, ঘরে ঢুকে দেখত ছেলে দিদিমাকে জড়িয়ে ঘুমিয়ে আছে। মুম্বই ফেরত যাওয়ার দিনটায় মায়ের মুখটা ছোট হয়ে এসেছিল, সারাদিন কাজ ফেলে নাতিকে নিয়ে বসে রইল।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

সাত্যকী ও মিলি

শুভদৃষ্টির সময় মিলিকে একদম অন্য সাজে দেখে সে কিছুই চিন্তা করতে পারেনা। রানী রঙের বেনারসী, রজনীগন্ধার মালা, কপালে চন্দনের কারুকাজ, হাতে লাল গাছকৌটো – সব মিলিয়ে সে যেন স্বপ্ন দেখছে।

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Rock On 2 – Released With Defects : A Quick Review

A quick review of ROCK ON 2 released on 11th Nov 2016.

Reviewer ~ Chhandak Chakraborty
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Light – A Short Story

Shyam stood up and switched on the lights. Out of all the colours, the red lights illuminated her eyes and reflected on her face in an unusual way, making her more beautiful, bold and buoyant.

Author ~ Soumik Sarkar
#AnariMinds #ThinkRoastEat

আত্মবোধ

লেখক ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat $TinyStory

Smoking – A Short Story

They say a cigarette has a fire at one end and a fool at the other. The irony is nobody ever noticed the same about love. She sucked in for the last time and the red tip grew brighter again, leaving a swirl of smoke.

Author ~ Snigdha Susmita Sahoo
#AnariMinds #ThinkRoastEat

লাল চা

– “আপনি আবার এসব ছাইপাঁশ খাচ্ছেন? ঘরে আপনার নাতি আছে ওর কথাটা অন্তত ভাবা উচিত ছিল আপনার!”
– “পাপান ওর দিদুনের সাথে বেরিয়েছে, আসতে দেরি হবে,” কথাটা শেষ করেই কাপে এক চুমুক দেন রাজীববাবু, সাথে সাথে নাক টা কুঁচকে ওঠে তাঁর।

লেখক ~ শুভ্র রাহা
#AnariMinds #ThinkRoastEat

টাকা মাটি, মাটি টাকা

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

Vengeance – A Short Story

That night, you and your friends picked me up in the bus. You were driving it… I thought it would be safe to board a bus, rather than hiring a cab. How I would have known what waited for me!

Author ~ Snigdha Susmita Sahoo
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Chance

I am numb. Disturbed, no. Shaken, yes. Totally. I read it again and again, and again. But my mind refuses to take into account what has just happened. I need to collect myself. I need to breathe.

Author ~ Deblina Chowdhury
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মা

লেখিকা ~ কথাকলি মুখার্জী দত্ত
#AnariMinds #ThinkRoastEat #TinyStory

আমার কালী

– শোনো মেয়ের কথা। তুই আর রণ কি এক? ওসব কি মেয়েদের খেলা?
– মেয়ে তো কি? আমি তো রণ, সন্তু, বান্টির থেকে কত জোড়ে বল নিয়ে দৌড়াই। গোলও তো করেছি।
– তুই কি আমার কথা কখনো শুনবি না। যা, গিয়ে পড়তে বোস।

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat

শক্তি রূপেণ

নাম টা তুই আর জানবি কি করে, তুই তো শুধু আমার শরীরটা চিনিস। সেই রাতে চলন্ত বাসে কি করেছিলি মনে আছে তোর? রক্তাক্ত আমার শরীরটাকে যখন ফেলে চলে গেলি তখন ফিরে তাকিয়েছিলি একবারও?

লেখিকা ~ স্নিগ্ধা সুস্মিতা সাহু
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মাতৃ রূপেণ

তবু আমার নজর তো বারবার চলে যাচ্ছে ঐ অনতিদূরে গাছে বেঁধে রাখা শিশুটার দিকে……….নরম কালো পশমে ঢাকা চকচকে কচি এক ছাগ শাবক।

লেখিকা ~ সমালী দাস চক্রবর্তী
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ইয়ার্কি

– “তুই বুঝবি না। কোনদিন বৃষ্টি তে দাঁড়িয়ে কেঁদেছিস?”
– “না। তবে…. ”
– “তবে কি??”
– “যতদূর মনে পড়ে, একবার সমুদ্রে দাঁড়িয়ে ইয়ে করেছি।”

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

বীথি

পড়তে বসার আগে কিছুক্ষণ ছাদে পায়চারি করা তার অভ্যাস। হঠাৎই কানে ভেসে এল একটা নরম সুর, কেউ যেন কাছেপিঠে কোথাও নিপুণ ভাবে খেলা করছে সুর নিয়ে। প্যাচ প্যাচে গরমের ভোরে এরকম মিষ্টি একটি আওয়াজ ভাল লাগল মিথিলেশের।

লেখক ~ শুভ্র রাহা
#AnariMinds #ThinkRoastEat

নশ্বর

এবার ধীরে ধীরে ওই পুরোনো খাট এর তলায় তাকালাম। যা দেখলাম, মনে হল যেন আমার গোটা শরীরটা অবশ হয়ে যাচ্ছে। এটা তো সেই স্যুটকেস টা! যেটা আমি স্বপ্নে দেখেছিলাম। তাহলে এর মধ্যে কি……?

লেখক ~ অনির্বাণ, আনন্দ, অরিজিৎ, স্নিগ্ধা

#PujoSpecial #4Writers1Story
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মুক্তিস্নান

ছেলেটার মুখের আদলটা চেনা চেনা লাগছে না? কোনো খুব কাছের লোকের সাথে এই ছেলেটার মুখের খুব মিল আছে। কার সাথে? কিছুতেই মনে পড়ছে না, অদ্ভুত এক অস্বস্তি ঘিরে ধরলো অবিকে। পিছনে অন্য গাড়ি গুলো থেকে হর্নের শব্দে ওর সম্বিৎ ফিরে এলো।

লেখক ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Up Up And Away – A Short Story

The feather was now sitting in her palm. She stared at it for a long time. Then she took it to their west facing balcony. The lake outside her apartment complex was 11 floors down from where she stood.

Author ~ Snigdha Susmita Sahoo
#AnariMinds #ThinkRoastEat

আবদার (একটা খুব ছোট্ট গল্প)

বলো না মা, কারা কারা আসবে গিফ্ট নিয়ে? কাকাই কে বলব বেলুন গুলো ফুলিয়ে দিতে। আর চকমকে কাগজে লেখা হ্যাপি বার্থডে টা আলমারির মাথায় টানিয়ে দেবে দাদাই। খুব লম্বা তো দাদাই, ঠিক হাত পেয়ে যাবে। কি মজাই না হবে!

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

তোতন আসিয়াছে ফিরিয়া

ইতিহাসে বেশ কিছু উত্থান পত্তন, ভূগোলে মা গঙ্গার আঁকাবাঁকা গতিপথ আর ধান ও পাট চাষের অনুকূল আবহাওয়া, ভৌতবিজ্ঞানে ওহম জুল ফ্যারাডে; এগুলো না হয় ম্যানেজ হয়েই যাবে। বাগে আনা চাপ শুধু ওই বখে যাওয়া মাল টা কে। অঙ্ক!

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

The “Better” Alternative – A Short Story

Abdul’s room is on the second floor, so he takes the stairs, enters into his room and locks the door from inside, without giving any response to his Ammijan.

Author ~ Subhra Raha
#AnariMinds #ThinkRoastEat

A For Apple – A Short Story

He had a glance of the boy again and then turned his attention towards his apple, thought for a moment and started eating the apple quickly.

Author: Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Florence & A Bottle Of Wine

Only downside is the toilet. For 10 people 1 toilet is difficult, what if the nature calls three people at the same time? Who will go first? And who will dance around it?

[su_divider top="no" style="dotted" divider_color="#d84a4a" link_color="#db4949" size="7" margin="35"]XXX[/su_divider]

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

প্যারিসের পাঁচদিন – যাত্রা শুরু

আর যেটা না বললে এই ট্রেনযাত্রাটাই অসম্পূর্ণ থেকে যাবে সেটা হল মেইসি উইলিয়ামসের সাথে দেখা হয়ে যাওয়া। “গেম অফ থ্রোনস” এ আরিয়া স্টার্কের ভুমিকাতে অভিনয় করে যে এখন খ্যাতির শিখরে। স্টার্ক সেলফি? আসুন দেখাচ্ছি!

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

চোরাস্রোত

ট্রেন এর কামরাটাতে অফিস ফেরত কিছু যাত্রী তাস খেলতে আর ঘাম মুছতে ব্যস্ত, লোকাল ট্রেনের ফ্যানের হাওয়া নিচে পর্যন্ত আসেই না। নিলয় গল্পের বইয়ের পাতায় চোখ রাখলো, কিন্তু মন বসাতে পারলো না, মাথায় হাজার চিন্তা ভিড় করে আসছে।

লেখক ~ আনন্দ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

You’re Beautiful – A Short Story

He felt a tinge of pain in his arm when she came so close to him. He looked at her. She smiled. He felt nervous for the first time. It was dark outside. The street, leaving from the library was deserted.

Author ~ Snigdha Susmita Sahoo
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Fragrance – A Short Story

A chilled gust of air made her shiver. She looked at Rajat, who was still sleeping. She got up from the chair and went to their bedroom.… looked into the cupboard and found a shawl.

Author ~ Snigdha Susmita Sahoo
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Where The Dead Still Stare At You

You must have heard of Tantrics who would keep human skeletons to themselves. But what if we tell you that there is a Christian chapel ornately decorated with 40,000 human skeletons? Yes, that place does exist on earth!

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

চার্ণক দার গুল্পগুচ্ছ – ৫ম কীর্তি – বারমুডা

সেবার সব ছেড়েছুড়ে শূন্যমার্গে বিচরণের সাধনা করছি ব্যোমকাই বাবার কাছে। দুবেলা স্পেশাল জড়িবুটী খাই, আর পদ্মাসনে বসে শুন্যে ওঠার সাধনা করি। মনে হয় হবে হবে, কিন্তু কিছুতেই আর পেরে উঠি না।

লেখক ~ ডঃ স্বদেশ মান্না
#AnariMinds #ThinkRoastEat

The Sound – A Short Story

His heart skipped a bit, he looked back, took out his cell phone and switched on the flash light of the cell phone cam and moved his hand from left to right. And it did not reveal anything irregular. There was nobody behind him.

Author ~ Snigdha Susmita Sahoo
#AnariMinds #ThinkRoastEat

চার্ণক দার গুল্পগুচ্ছ – ৪র্থ কীর্তি – বাঘনখ

সরু সরু পা দুটো কি একটু থমকে গেলো? গৌরচন্দ্রিকা শুনে বাঁকা চন্দ্রের মত ভুরু দুটো কি একটু কোঁচকালো? নাহ! আমাদের মনের ভুল বোধহয়। মুখে পেটেন্ট হাসিটা ধরে রাখার চেষ্টা করতে করতে তিনি প্রবেশ করলেন।

লেখক ~ ডঃ স্বদেশ মান্না
#AnariMinds #ThinkRoastEat

চার্ণক দার গুল্পগুচ্ছ – ৩য় কীর্তি – চুরুট

কিন্তু আমি যদি চার্নক হই উনিও হিটলার। চালাকিতে তিনিও কম যান না। নিজেরটা আমার দিকে এগিয়ে দিলেন আর আমারটা নিলেন নিজের জন্য। কাঁপা কাঁপা হাতে আমি চুরুট টা নিলাম। তারপর শুরু হল দুজনের যুগলে ধূমপান।

লেখক ~ ডঃ স্বদেশ মান্না
#AnariMinds #ThinkRoastEat

চার্ণক দার গুল্পগুচ্ছ – ২য় কীর্তি – ডাম্বেল

“ঘনাদার কথা শুনলাম মনে হল।”- এই মোক্ষম মুহূর্তে তাঁর আবির্ভাব। প্যাঁকাটির মত একটা হাত কপালে, আরেক টা হাতে সিগারেট। স্যান্ডো গেঞ্জি আর পেটেন্টেড তেলচিটে বারমুডা। “ছ্যাঃ। ঘনাদার নাম নিতে গেলে কপালে হাত ঠেকাতে হয় জানিসনা!” তিনি তিরষ্কার করলেন।

লেখক ~ ডঃ স্বদেশ মান্না
#AnariMinds #ThinkRoastEat

চার্ণক দার গুল্পগুচ্ছ – ১ম কীর্তি – নাম রহস্য

মফস্বল থেকে কলকাতা এসেছি। রোজই নতুন নতুন মানুষ দেখি। রোজই নতুন অভিজ্ঞতা হচ্ছে। কিন্তু সেদিনের ব্যাপার একদম আলাদা। একঘেয়ে অ্যানাটমির লম্বা দুঘণ্টা ক্লাস শেষ করে রুমে ঢুকতেই সারপ্রাইজ!

লেখক ~ ডঃ স্বদেশ মান্না
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Italy Diaries – Romantic Rome

Be watchful. Getting robbed here is easier than counting stars in a clear sky. And we followed that by heart! I was even afraid of stepping outside the station for buying some food.

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Italy Diaries – Roman Holiday

Visitors from all over the world have bought advanced tickets. If Colosseum is Victoria memorial, the last person in the queue was standing in the PTS crossing!

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Valentine দেহি নমোহস্তুতে

ক্লাসরুমের দেওয়াল আর সিলিং টা দেখলেই মেনু টা স্পষ্ট হয়ে যায়। চাটনির টম্যাটো গুলো হাফ আটকে হাফ ঝুলে, পাখার ব্লেডে আমসত্ত্ব ডাইভ মারবার জন্য রেডি, ব্ল্যাকবোর্ডের গায়ে বেগুনভাজার খোসা। জমপেশ মেনু মনে হচ্ছে।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

The Other Half (Final Episode)

‘I can smell an unknown ladies perfume here. Is someone else in our room?’ said Maya with scared eyes and shifted her vision towards Vikram. ‘Is Niharika here?’

Author: Anirban Ghosh & Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

The Other Half

She stepped back from the edge and looked back into the room again with a strange and hidden fear. Vikram is nowhere to be seen.

Author: Anirban Ghosh & Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মাধ্যমিকের গ্যাঁড়াকলে

পাশ ফেল টা তো ছাত্র আর শিক্ষকের নিজেদের মধ্যেকার ব্যাপার, এর মাঝে বারবার বাবা কে আনার কি দরকার তোতন বুঝতে পারে না।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অ্যাই ছেলে! কতো পেয়েছ অঙ্কে?

ক্লাসের বাইরের বারান্দাতে বেরিয়েই বুদ্ধি টা খেলল, মনে হল কোয়েস্‌চেন পেপার টার একটা সদ্গতি করা দরকার, তাই না পারা অঙ্ক গুলো কে নিয়েই প্লেন টা উড়ল।

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Anari Minds: 2015 In Review

A New York City subway train holds 1,200 people. This blog was viewed about 3,900 times in 2015. If it were a NYC subway train, it would take about 3 trips to carry that many people.
#AnariMinds #ThinkRoastEat

7 Days In Turkey – Before The Fire Began (Part 2)

After finishing breakfast, I went for a walk at the harbour. That’s the job of “worker bee”, to know the streets before the “queen bee” emerges on her tryst!

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

7 Days In Turkey – Before The Fire Began (Part 1)

This is the ‘Baap’ of all Secular places. It was made in 5th Century, first a Greek Cathedral, then a Roman Basilica, then a Christian Church, then a Mosque, and now a Museum!

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

10 Freshly Baked Advertising Ideas Free To Be Stolen (Part 2)

“Advertising is the art of making whole lies out of half truths.” – Edgar A. Shoaff

Author: Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

10 Freshly Baked Advertising Ideas Free To Be Stolen (Part 1)

“Doing business without Advertising is like winking at a girl in the dark. You know what you’re doing, but nobody else does.”
– Stuart H. Britt

Author: Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Bicycle Diary – Story Of A Two Wheeler

I looked up while being paddled and saw the girl’s face was turned towards Toton and ………….

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Revenge Of The Asura – A ROFL Thriller

I have to stay beneath her feet in the most acrobatically unsafe posture, can’t even flex my back a bit, this humiliation will never end!

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Excuse Us! It’s A Public Bus! (Episode-2)

Being a coward person in such cases, I quickly checked my pant pocket to be sure if the machine was intact or not.

Author: Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Excuse Us! It’s A Public Bus! (Episode-1)

Lusty eyes are fixed at the newspaper headline, not of only the old one, but also 6 more pairs of eyes from different distances, including mine!

Author: Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Superstitions In India – An Eye Opener

Whom have you first seen in the morning after waking up?
Did anyone sneeze before you set out?
Did any cat cross your path? Was it black?

Author: Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

10 Secrets Why Men Love Bathroom

The place with size of a quarter of a bedroom acts as an altar to our alter-ego. Let’s roast its 10 avatars.

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Tuition Days – A Tale Of Our Teen Age

Where there is a will, there are 100 ways and 1000 partners in crime!

Author: Anirban Ghosh & Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Hey Bro! How Did You Lose Your Will To Women?

You surely love seeing tigers, may even have wanted to cuddle them, but would you ever think of bringing them home?? NEVER!!

Author: Anirban Ghosh
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Thank God It’s Monday!!

Pat your back thinking that you still have one last good thing to try in your mundane life. Yeah, that’s it…..now you’re thinking in right direction!

Author: Anirban Ghosh & Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

The Cruise That Screwed Us

“Put your hands on me Jack.”
The first sentence from the movie I understood so clearly. Nooooo.. not again pleeeease!!

Author: Anirban Ghosh & Arijit Ganguly
#AnariMinds #ThinkRoastEat

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.