ভালোবাসার বুদবুদ

“কি হল.. চলে যাচ্ছো যে.. প্রোগ্রাম দেখবে না !!” চমকে পিছনে তাকাল অস্মি. . সুন্দর সুঠাম গঠন.. চোখা নাক…ঠোঁটের কোণে নির্ভেজাল হাসি…আর দৃষ্টিতে বেশ বুদ্ধিদীপ্ত ভাব; কোন ছেলের চোখ এত সুন্দর হতে পারে…

লেখিকা ~উদিতি মজুমদার
#AnariMinds #ThinkRoastEat

মিথ্যে হলেও সত্যি

চোখ দুটো দিয়ে অবিরত অশ্রু বয়ে চলেছে। প্যান্টের পকেট হাতড়ে রুমাল টা বের করতে যাচ্ছিল সে, এমনসময় পিছন থেকে আসা একটা বেপরোয়া গাড়ি সজোরে ধাক্কা মারে তাদের গাড়িতে।

লেখক ~ শুভ্র রাহা
#AnariMinds #ThinkRoastEat

অন্য ভ্যালেন্টাইন

– হুমম্, এমন ভান করছ যেন ধোয়া তুলসীপাতা। মনে পড়ে স্টেশানের ধারে বকুলগাছের তলায়….
– ওরে কে কোথায় আছিস রে? তুলে নে আমাকে…
– কেউ নেই গিন্নি, শুধু তুমি আর আমি। সেই বকুলবাসরের কোন রেজাল্ট আজ বাড়িতে নেই।

লেখক ~ অরিজিৎ গাঙ্গুলি
#AnariMinds #ThinkRoastEat

ও প্রান্তে

তারপরে মানিব্যাগ থেকে ভিসিটিং কার্ড বার করে দিলেন, তখনই দেখলাম তোমাকে, মানিব্যাগের ফাঁক দিয়ে কয়েক মুহূর্তের জন্য উঁকি মেরেছিল ছবিটা, চিনে নিতে ভুল হয়নি…

লেখক ~ অনির্বাণ ঘোষ
#AnariMinds #ThinkRoastEat

পেটের টান

কাজ বলতে গর্ত খোঁড়া জায়গার পাশে দাঁড়িয়ে থেকে ছুটে যাওয়া গাড়ীগুলোকে পতাকা দেখিয়ে সাবধান করা। বেশ মজাই পায় সে। এইটুকু কাজের জন্য টাকা পাওয়া যাবে। তারপর দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে গাড়ীগুলোকে দেখতেও বেশ ভাল লাগে। মাঝে মাঝে অবশ্য ঠিকাবাবুর ফরমাশ খাটতে হয়। জল আনে দেওয়া, চা এনে দেওয়া – খারাপ লাগেনা।

লেখক ~ শান্তনু দাস
#AnariMinds #ThinkRoastEat